Breaking News

আদালতে সকলের সামনে এই একটি প্রশ্ন করেই সকলকে চমকে দিলেন শাহরুখ-পুত্র আরিয়ান! মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও।

বিভিন্ন তথ্য উঠে আসছে আরিয়ান খান এর গ্রে-প্তারি হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে। আমরা জানি মুম্বাই থেকে গোয়া গামী প্রমোদতরীতে যে পার্টি চলছিল সে পার্টির মধ্যে মাদক ব্যবহার করা হচ্ছিল এবং এই কান্ডের সাথে সরাসরি যুক্ত ছিল শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। তাই দেশের নারকোটিস বিভাগ তাকে গ্রেফতার করেছে ইতিমধ্যে এবং ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

তার পাশাপাশিআদালতে আরিয়ান খান কে প্রশ্ন করা হলে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি ঐদিন। কি বললেন বিচারকের সামনে আসুন জেনে নিন। মাদক কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর নারকোটিস বিভাগ এর তরফ থেকে এমনটা জানা যাচ্ছে যে আরিয়ান খান নিজের ভুল স্বীকার করেছেন এবং স্বীকার করেছেন যে তিনি মাদককে সাথে বহু বছর ধরে যুক্ত রয়েছে।

এমনকি তার হাতের লেখা একটি লিখিত পত্র রয়েছে। ইতিমধ্যে পেশ করা হয়েছে আদালতে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তাকে আরও ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু আরিয়ানের আইনজীবীর বক্তব্য যে এই ঘটনার সাথে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান কোন রকম ভাবে জড়িত নয় তাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হচ্ছে ঐদিন আদালতে আরিয়ান খান বলেন যে সেদিন প্রমোদতরীতে প্রায় ১৩০০ জন সদস্য ছিল কিন্তু বেছে বেছে সে ১৭ জনকে কেন গ্রেফতার করা হলো তা জানতে চেয়েছেন তিনি।

তার পাশাপাশি সে প্রমোদতরীতে প্রবেশ করার সময় তার ব্যাগ চেক করেছিলেন দেশের নারকোটিস বিভাগের কর্মকর্তারা। কিন্তু সেখান থেকে কোনরকম কোন মাদক দ্রব্য পাওয়া যায়নি তিনি জানিয়েছেন যে সেই পার্টিতে তাকে একজন অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল শাহরুখ খানের ছেলে সে পার্টিতে উপস্থিত থাকবে বলে অনেকটা ভিড় জমান সম্ভব হবে তাদের পক্ষে।

কিন্তু এই ঘটনার সাথে তিনি কোনরকম ভাবে যুক্ত নন আরবাজের সাথে তিনি তার বন্ধুত্বের কথা অস্বীকার করেননি। কিন্তু অস্বীকার করেছেন তার কর্মকাণ্ডের সাথে যুক্ত থাকার কথা। অপরদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে যে আরিয়ান খান এবং আরবাজ ড্রাগের ব্যবসা করতো একই ব্যক্তির কাছ থেকে এমনটা তথ্য পাওয়া গেছে তাদের হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট থেকে।

তার পাশাপাশিআদালতে আরিয়ান খান কে প্রশ্ন করা হলে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি ঐদিন। কি বললেন বিচারকের সামনে আসুন জেনে নিন। মাদক কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়ার পর নারকোটিস বিভাগ এর তরফ থেকে এমনটা জানা যাচ্ছে যে আরিয়ান খান নিজের ভুল স্বীকার করেছেন এবং স্বীকার করেছেন যে তিনি মাদককে সাথে বহু বছর ধরে যুক্ত রয়েছে।

এমনকি তার হাতের লেখা একটি লিখিত পত্র রয়েছে। ইতিমধ্যে পেশ করা হয়েছে আদালতে। যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তাকে আরও ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু আরিয়ানের আইনজীবীর বক্তব্য যে এই ঘটনার সাথে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান কোন রকম ভাবে জড়িত নয় তাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হচ্ছে ঐদিন আদালতে আরিয়ান খান বলেন যে সেদিন প্রমোদতরীতে প্রায় ১৩০০ জন সদস্য ছিল কিন্তু বেছে বেছে সে ১৭ জনকে কেন গ্রেফতার করা হলো তা জানতে চেয়েছেন তিনি।

তার পাশাপাশি সে প্রমোদতরীতে প্রবেশ করার সময় তার ব্যাগ চেক করেছিলেন দেশের নারকোটিস বিভাগের কর্মকর্তারা। কিন্তু সেখান থেকে কোনরকম কোন মাদক দ্রব্য পাওয়া যায়নি তিনি জানিয়েছেন যে সেই পার্টিতে তাকে একজন অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল শাহরুখ খানের ছেলে সে পার্টিতে উপস্থিত থাকবে বলে অনেকটা ভিড় জমান সম্ভব হবে তাদের পক্ষে।

কিন্তু এই ঘটনার সাথে তিনি কোনরকম ভাবে যুক্ত নন আরবাজের সাথে তিনি তার বন্ধুত্বের কথা অস্বীকার করেননি। কিন্তু অস্বীকার করেছেন তার কর্মকাণ্ডের সাথে যুক্ত থাকার কথা। অপরদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে যে আরিয়ান খান এবং আরবাজ ড্রাগের ব্যবসা করতো একই ব্যক্তির কাছ থেকে এমনটা তথ্য পাওয়া গেছে তাদের হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট থেকে।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *