মাছ খেতে গিয়ে মাছের তারা খেয়েই পিছন ঘুরে পালালো ছোট্ট বিড়াল ছানা, ভিডিও মুহূর্তে ভাইরাল

মাছ খেতে গিয়ে হটাৎ মাছের তারা খেলো এই বিড়াল তার যা হলো মাছ দেখতে পেলে বিড়াল একেবারে ছোট মাছের দিকে চলে আসে । মাছ খাওয়ার জন্য বিড়াল মাছ খেতে খুবই ভালোবাসে তা আমরা সকলেই জানি।

আমাদের বাড়িতে যদি একটা বিড়াল থাকে তাহলে রান্না ঘরে মাছ খুব সাবধানে রাখতে হয়। কারণ বিড়াল মাছ চুরি করেও খেয়ে নেন। কুকুর অবশ্য এমন টা করেনা। কুকুর প্রভুভক্ত হয় তারা কখনই বেইমানী করে না,

কিন্তু বিড়াল যতই হোক না কেন মাছ দেখলে সে আর লোভ সামলাতে পারেনা।সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কত কিছুইনা ভাইরাল হয়। কখনো দুঃখের ঘটনা তো কখনো নানান রকম আনন্দের ঘটনা।

আর এই ধরনের ছোটখাট ঘটনা যেগুলো আমাদের বাড়িতে প্রায়ই ঘটে থাকে। সেই ঘটনাকে একমাত্র সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে চারিদিকে ছড়িয়ে দেওয়া যায়।আগেকার দিনে সমস্ত দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হতো টেলিভিশনের পর্দায়। তাও টেলিভিশনের পর্দায় খুব একটা ঘরের মধ্যেকার হওয়া ঘটনা দেখা যেত না। বর্তমানে হাতে,

একটা মুঠোফোন থাকলে আর সোশ্যাল মিডিয়া এদিক ওদিক ঘুরে বেড়ালেই এমন আনন্দের খোরাক সহজেই পাওয়া যায়।সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছ, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটা আস্ত মাছ এত জোরে লাফাচ্ছে।

আর সেই মাছকে দেখে বিড়াল বাবাজি একেবারে দে ছুট। আসলে মাছের আয়তন বিড়ালের আয়তনের থেকে অনেকটাই বড়। তাই মাছের অমন লাফানো দেখে বিড়াল বেশ ভয় পেয়ে গেছে তাকে আজও সীমানার মধ্যে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না।

বিশ্বমিডিয়ায় এমন ভাইরাল একেবারে ঝড়ের মতন ভাইরাল হয়েছে যা দেখে মানুষ এত জোরে হেসেছেন যে বোঝার কথা নয়। এত দুঃখের মাঝে চারিদিকে যখন ভাইরাস নিয়ে মানুষ এত চিন্তিত এবং গৃহবন্দি অবস্থায় মনমরা হয়ে বসে আছে, সেই মুহূর্তে এমন ঘটনা গুলি মানুষকে আনন্দ তো দেবেই।

আর এই ধরনের ছোটখাট ঘটনা যেগুলো আমাদের বাড়িতে প্রায়ই ঘটে থাকে। সেই ঘটনাকে একমাত্র সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে চারিদিকে ছড়িয়ে দেওয়া যায়।আগেকার দিনে সমস্ত দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হতো টেলিভিশনের পর্দায়। তাও টেলিভিশনের পর্দায় খুব একটা ঘরের মধ্যেকার হওয়া ঘটনা দেখা যেত না। বর্তমানে হাতে,

একটা মুঠোফোন থাকলে আর সোশ্যাল মিডিয়া এদিক ওদিক ঘুরে বেড়ালেই এমন আনন্দের খোরাক সহজেই পাওয়া যায়।সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছ, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটা আস্ত মাছ এত জোরে লাফাচ্ছে।

আর সেই মাছকে দেখে বিড়াল বাবাজি একেবারে দে ছুট। আসলে মাছের আয়তন বিড়ালের আয়তনের থেকে অনেকটাই বড়। তাই মাছের অমন লাফানো দেখে বিড়াল বেশ ভয় পেয়ে গেছে তাকে আজও সীমানার মধ্যে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না।

বিশ্বমিডিয়ায় এমন ভাইরাল একেবারে ঝড়ের মতন ভাইরাল হয়েছে যা দেখে মানুষ এত জোরে হেসেছেন যে বোঝার কথা নয়। এত দুঃখের মাঝে চারিদিকে যখন ভাইরাস নিয়ে মানুষ এত চিন্তিত এবং গৃহবন্দি অবস্থায় মনমরা হয়ে বসে আছে, সেই মুহূর্তে এমন ঘটনা গুলি মানুষকে আনন্দ তো দেবেই।

About admin

Check Also

১৩ জ’ন স্ত্রী’কে এ’কসাথে গ’র্ভবতী বা’নিয়ে বি’শ্বরেকর্ড ক’রলেন স্বা’মী

বহুবিবাহ প্রথা ভারতে বহু বছর আগে ছিল, যেখানে একজনের একাধিক স্ত্রী থাকতো যদিও কিছু কিছু …

Leave a Reply

Your email address will not be published.