শুধু ফুসফুস নয়, কোভিডে ক্ষতি হয় পুরুষদের যৌনাঙ্গেরও, দাবি গবেষণায়

কোভিডের আক্রমণে শুধু যে শ্বসনতন্ত্র নয়, গোটা শরীরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গই আক্রান্ত হয় তা নিয়ে বারবারই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন চিকিৎসকরা। এ বার সেই তালিকায় যুক্ত হল পুরুষদের যৌনাঙ্গও। একাধিক গবেষণা বলছে কোভিডের ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হয় পুরুষদের যৌন স্বাস্থ্য।

কিছু গবেষকের মতে, পুরুষদের শুক্রাশয়ে থাকে এমন কিছু উৎসেচক রিসেপ্টর যা কোভিডের যাত্রাপথকে মসৃণ করে। ইতিমধ্যেই ইটালির এক দল গবেষক জানিয়েছিলেন, কোভিডের ফলে শরীরে ‘সাইটোকাইন ঝড়’ চলে যা সংবহন তন্ত্রের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে।

যেহেতু লিঙ্গ শিথিলতার সঙ্গে এই বিষয়টি ওতপ্রোতভাবে জড়িত তাই, এর প্রভাব পুরুষেদের যৌন জীবনেও পড়ে বলেই অভিমত তাঁদের।কিছু গবেষকদের সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় আবারও একই দাবি করা হয়েছে। তাঁরাও জানাচ্ছেন, কোভিড আক্রান্ত হওয়ার পর পুরুষরা দীর্ঘ দিন লিঙ্গ শিথিলতার সমস্যায় ভুগতে পারেন।

কারণ হিসেবে তাঁদের বক্তব্য, কোভিডের ফলে পুরুষদের যৌন হরমোন টেস্টোস্টেরন উৎপাদনকারী কোষগুলি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। যার ফলে দেহের স্বাভাবিক টেস্টোস্টেরন উৎপাদন ক্ষমতা কমে যায় বহুলাংশে। বিজ্ঞানের ভাষায় একে বলা হয় হাইপোগোনাডিজম।

কোভিডের ফলে যে কেবল লিঙ্গ শিথিলতা ও হরমোনের ভারসাম্যের সমস্যা দেখা যায় এমনটাই নয়। শুক্রাণুর সংখ্যা হ্রাসও কোভিডের একটি নেতিবাচক প্রভাব হতে পারে বলে মত গবেষকদের একাংশের।

পাশাপাশি শুধু শারীরিক সমস্যাই নয়, কোভিডের মানসিক প্রভাবও অত্যন্ত বিপজ্জনক হতে পারে। যৌন চাহিদা হ্রাস পাওয়া এর অন্যতম লক্ষণ। কোভিড আক্রান্ত হওয়ার পর দীর্ঘ দিন শারীরিক মিলনে সমস্যায় পড়তে পারেন পুরুষরা।

কিছু গবেষকের মতে, পুরুষদের শুক্রাশয়ে থাকে এমন কিছু উৎসেচক রিসেপ্টর যা কোভিডের যাত্রাপথকে মসৃণ করে। ইতিমধ্যেই ইটালির এক দল গবেষক জানিয়েছিলেন, কোভিডের ফলে শরীরে ‘সাইটোকাইন ঝড়’ চলে যা সংবহন তন্ত্রের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে।

যেহেতু লিঙ্গ শিথিলতার সঙ্গে এই বিষয়টি ওতপ্রোতভাবে জড়িত তাই, এর প্রভাব পুরুষেদের যৌন জীবনেও পড়ে বলেই অভিমত তাঁদের।কিছু গবেষকদের সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় আবারও একই দাবি করা হয়েছে। তাঁরাও জানাচ্ছেন, কোভিড আক্রান্ত হওয়ার পর পুরুষরা দীর্ঘ দিন লিঙ্গ শিথিলতার সমস্যায় ভুগতে পারেন।

কারণ হিসেবে তাঁদের বক্তব্য, কোভিডের ফলে পুরুষদের যৌন হরমোন টেস্টোস্টেরন উৎপাদনকারী কোষগুলি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। যার ফলে দেহের স্বাভাবিক টেস্টোস্টেরন উৎপাদন ক্ষমতা কমে যায় বহুলাংশে। বিজ্ঞানের ভাষায় একে বলা হয় হাইপোগোনাডিজম।

কোভিডের ফলে যে কেবল লিঙ্গ শিথিলতা ও হরমোনের ভারসাম্যের সমস্যা দেখা যায় এমনটাই নয়। শুক্রাণুর সংখ্যা হ্রাসও কোভিডের একটি নেতিবাচক প্রভাব হতে পারে বলে মত গবেষকদের একাংশের।

পাশাপাশি শুধু শারীরিক সমস্যাই নয়, কোভিডের মানসিক প্রভাবও অত্যন্ত বিপজ্জনক হতে পারে। যৌন চাহিদা হ্রাস পাওয়া এর অন্যতম লক্ষণ। কোভিড আক্রান্ত হওয়ার পর দীর্ঘ দিন শারীরিক মিলনে সমস্যায় পড়তে পারেন পুরুষরা।

About admin

Check Also

জীবনে সুখী হতে চাইলে বিয়ে করুন এসব মেয়েকে, জেনেনিন কেন !

প্রত্যেক নারীর মনোভাব বদলে গিয়েছে। আগের মতো আর নেই, যে খাবার সামনে পেলো আর ওটাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.