সুবাহ বহু পুরুষে আসক্ত, তাকে টেস্ট করা হোক: ইলিয়াস

সংগীতশিল্পী ইলিয়াস হোসাইন ও মডেল-অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমায়রা গত বছরের ১ ডিসেম্বর ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ে করেছিলেন। এর কয়েকদিন পর বিষয়টি প্রকাশ্যে আসলেই কাদা-ছোড়াছুড়ি শুরু হয়। দু’জনেই হয়ে ওঠেন একে-অপরের প্রতিপক্ষ।

এমনকি থানায় একে অপরের নামে জিডিও করেন। সুবাহর অভিযোগ, ইলিয়াস তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেছেন। এসব তথ্য তারা দুজনই সংবাদ সম্মেলনে দিয়েছেন। অন্যদিকে ইলিয়াস অভিযোগ তোলেন, সুবাহ তাকে ফাঁদে ফেলে বিয়ে করেছেন। এমনকি বিয়ের পর তার গায়ে নাকি হাতও তুলেছেন।

বর্তমানে ইলিয়াস দুবাই এ অবস্থান করছেন। সেখানে থেকে তিনি দেশের একটি গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেন। সেখানে ইলিয়াস মামলা সম্পর্কে বলেন, মিথ্যা বেশি দিন টেকে না, সুবাহর করা মামলাটি পুরোপুরি মিথ্যা, সাজানো এবং ভিত্তিহীন, মামলার এজাহারটি পড়লে যে কেউ বুঝবে,

এটি যে আমাকে মিথ্যা হয়রানি করার জন্যই করা। সুতরাং এই মিথ্যাও বেশি দিন টিকবে না। মাসখানেক পর দেশে ফিরলে আমিও অবশ্যই আইনি লড়াই করবো। a liar can never win. তার একমাত্র হাতিয়ার মিথ্যা কথা বলে কান্নার অভিনয় করা।

ইলিয়াস আরও বলেন, এটা তার ব্যবসা, মানুষকে ফাঁসানো। তার দ্বারা কারও সাথে সংসার সম্ভব না! কারণ সে বহু পুরুষে আসক্ত। বিশ্বাস নাহলে তার টেস্ট করা হোক। চ্যালেঞ্জ দিলাম ২০-৩০ জন পুরুষের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যাবে। সে আলোচনায় থাকতে চায়,

যেকোনো মূল্যে সেটার জন্য যত নিচে নামার দরকার সে নামবে তাতে তার ন্যূনতম লজ্জা কাজ করবে না। আগেই বললাম মিথ্যা কান্নার অভিনয়টাই তার মূল অস্ত্র। শ্রেষ্ঠ মিথ্যা কান্নার জন্য অ্যাওয়ার্ড থাকলে নিঃসন্দেহে সে পেত। তার বাসায় বহু পুরুষের আনাগোনা। যতই অভিনয় করুক মিথ্যার চেয়ে সত্যি অনেক শক্তিশালী।

বর্তমানে ইলিয়াস দুবাই এ অবস্থান করছেন। সেখানে থেকে তিনি দেশের একটি গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেন। সেখানে ইলিয়াস মামলা সম্পর্কে বলেন, মিথ্যা বেশি দিন টেকে না, সুবাহর করা মামলাটি পুরোপুরি মিথ্যা, সাজানো এবং ভিত্তিহীন, মামলার এজাহারটি পড়লে যে কেউ বুঝবে,

এটি যে আমাকে মিথ্যা হয়রানি করার জন্যই করা। সুতরাং এই মিথ্যাও বেশি দিন টিকবে না। মাসখানেক পর দেশে ফিরলে আমিও অবশ্যই আইনি লড়াই করবো। a liar can never win. তার একমাত্র হাতিয়ার মিথ্যা কথা বলে কান্নার অভিনয় করা।

ইলিয়াস আরও বলেন, এটা তার ব্যবসা, মানুষকে ফাঁসানো। তার দ্বারা কারও সাথে সংসার সম্ভব না! কারণ সে বহু পুরুষে আসক্ত। বিশ্বাস নাহলে তার টেস্ট করা হোক। চ্যালেঞ্জ দিলাম ২০-৩০ জন পুরুষের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যাবে। সে আলোচনায় থাকতে চায়,

যেকোনো মূল্যে সেটার জন্য যত নিচে নামার দরকার সে নামবে তাতে তার ন্যূনতম লজ্জা কাজ করবে না। আগেই বললাম মিথ্যা কান্নার অভিনয়টাই তার মূল অস্ত্র। শ্রেষ্ঠ মিথ্যা কান্নার জন্য অ্যাওয়ার্ড থাকলে নিঃসন্দেহে সে পেত। তার বাসায় বহু পুরুষের আনাগোনা। যতই অভিনয় করুক মিথ্যার চেয়ে সত্যি অনেক শক্তিশালী।

About admin

Check Also

ভাইরাল এই ঝগড়ার ভিডিও দেখে হেসে থাকতে পারবেন না ১০০% গ্যারান্টি

না জানি কত কত অ-বাক করার মতন ঘটনার সাক্ষী আমাদের এই সোশ্যাল মিডিয়া । সোশ্যাল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.