আমাকে গুলি করলেও আমি শেখ হাসিনা ও নৌকার বিরুদ্ধে যাব না: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে স্থানীয় এমপি শামীম ওসমানের বক্তব্যে আজ চমক আসতে পারে। বিএনপির একটি গ্রুপ মনে করছে শামীম ওসমান সমর্থন দিতে পারেন তৈমূর আলম খন্দকারকে। কিন্তু দলের একটি অংশ সংশয়ে রয়েছেন শামীম ওসমান কী বক্তব্য রাখবেন এ নিয়ে। এ কারণে নারায়ণগঞ্জের মানুষের চোখ আজ শামীম ওসমানের দিকে।

এদিকে গত রাতে টেলিফোনে শামীম ওসমানকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আইভী আমাকে আক্রমণ করে অনেক কথা বলছেন। আমার বাবার কবরস্থান ভরাট করেছেন শ্মশানের মাটি দিয়ে। এর পরও বলছি, তিনি আমাকে গুলি করলেও আমি শেখ হাসিনা ও নৌকার বিরুদ্ধে যাব না। আমি এবং আমার নেতা-কর্মীরা নৌকার পক্ষেই থাকব।’

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজমের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর বার্তা দিয়েছেন শামীম ওসমানকে নৌকার পক্ষে থাকতে। নানক-আজম দুজনই কথা বলেছেন শামীম ওসমানের সঙ্গে।

গতকাল আওয়ামী লীগের আরেকজন নেতা, যিনি আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন, আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমের সঙ্গেও শামীম ওসমানের কথা হয়েছে। শামীম ওসমান ফোনে আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমকে আশ্বস্ত করেছেন,

কোনোভাবেই তিনি নৌকার বিপক্ষে থাকবেন না। ব্যক্তিগতভাবে আইভীর সঙ্গে রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকলেও এবং আইভীর আচরণে ক্ষুব্ধ হলেও শামীম ওসমান কোনোভাবেই নৌকার বিপক্ষে যাবেন না।

এদিকে নারায়ণগঞ্জে দুই প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ অব্যাহত রেখেছেন। আইভী কিছু গণমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি তৈমূরের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনেন। এর জবাবে আইভীর বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ এনেছেন তৈমূর আলম খন্দকার।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজমের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর বার্তা দিয়েছেন শামীম ওসমানকে নৌকার পক্ষে থাকতে। নানক-আজম দুজনই কথা বলেছেন শামীম ওসমানের সঙ্গে।

গতকাল আওয়ামী লীগের আরেকজন নেতা, যিনি আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ছিলেন, আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমের সঙ্গেও শামীম ওসমানের কথা হয়েছে। শামীম ওসমান ফোনে আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমকে আশ্বস্ত করেছেন,

কোনোভাবেই তিনি নৌকার বিপক্ষে থাকবেন না। ব্যক্তিগতভাবে আইভীর সঙ্গে রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকলেও এবং আইভীর আচরণে ক্ষুব্ধ হলেও শামীম ওসমান কোনোভাবেই নৌকার বিপক্ষে যাবেন না।

এদিকে নারায়ণগঞ্জে দুই প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ অব্যাহত রেখেছেন। আইভী কিছু গণমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি তৈমূরের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনেন। এর জবাবে আইভীর বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ এনেছেন তৈমূর আলম খন্দকার।

About admin

Check Also

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আসছেন সোহেল তাজ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আসন্ন কাউন্সিল অধিবেশনে তানজিম আহমদ সোহেল তাজ দলীয় নেতৃত্বে আসছেন বলে আসা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.