রিয়াজ ভাই মেকি কান্না কাঁদতেছে: জায়েদ খান

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আগে এফডিসিতে শিল্পী সমিতির ভোটাধিকার হারানো ১৮৪ জন ভোটারের কয়েকজনের সঙ্গে সেখানে দেখা হয় চিত্রনায়ক রিয়াজের। এসময় ভোটাধিকার হারানো এক বৃদ্ধ রিয়াজকে জড়িয়ে ধরে কান্না শুরু করেন। তখন সেই বৃদ্ধ শিল্পীকে জড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন রিয়াজও।

হাউমাউ করে কাঁদতে কাঁদতে জনপ্রিয় এ নায়ক তখন বলেন, ‘ভোটাধিকার হারানো এই মানুষগুলোর কান্না থামিয়ে মুখে হাসি ফিরিয়ে দিতে চাই। এই মানুষগুলোর মুখের দিকে তাকান। তাদের সাথে অন্যায় হয়েছে।’ এ সময় ভোটাধিকার হারানো প্রায় ৫০ জন শিল্পী রিয়াজের সঙ্গে চিৎকার করে কান্না শুরু করেন।

রিয়াজের এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় শিল্পী সমিতির সাধারন সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, এখন যা ইস্যু হচ্ছে বা কিছু হচ্ছে তা নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই হচ্ছে। রিয়াজ ভাই মেকি কান্না কাঁদতেছেন, অথচ তিনিই ২০১৭ সালে সহযোগী যাচাই বাছাই করেছেন আমাদের সাথেই।

তখন তিনি ভেটো দেননি। রিয়াজ ভাই আপনি সম্মানিত মানুষ, সম্মান নিয়েই আমাদের ওপর থাকেন। আপনাদের থেকে আমরা ভাল জিনিস শিখছি। আপনারা সিনিয়র, আপনাদের দেখানো পথেই আমরা হাঁটবো। আমাদের খারাপ কিছু দেখলে আপনারা শাসন করবেন, কিন্তু দয়া করে নোংরামী করবেন না।

শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও শিমু হত্যাকাণ্ড ইস্যুতে জায়েদ খান বলেন, আমি নামধরেই বলতে চাই যে রিয়াজ ভাই কাঞ্চন ভাই আপনারা সম্মানিত মানুষ। এই নোংরামীগুলো কি আপনারা দেখছেন না? এগুলো কেন বন্ধ করছেন না আপনারা? আমি কাঞ্চন ভাইকে আবারও বলবো,

আপনি একুশে পদক পাওয়া সম্মানিত লোক, এই নোংরামি বন্ধ করেন। এই রিয়াজ ভাই আজকে অভিনয় করে মেকি কান্না কাঁদতেছে। অথচ এই শিমু-খোকনদের মত শিল্পীদের সহযোগী তালিকায় নেয়ার সময় তো কাঞ্চন ভাই, রিয়াজ ভাই, ফারুক ভাই, আলমগীর ভাই সবাই ছিলেন।

এটা সবাই জানে। তখন তো তারা কেউ কোনো আপত্তি করেননি।রিয়াজ প্রসঙ্গে জায়েদ খান আরও বলেন, সহযোগীদের সংখ্যা নিয়ে মামলা চলমান, কোর্টে বিচারাধীন। এটা নিয়ে কেন আন্দোলন হবে? এই ইস্যুতে যে রিয়াজ ভাই আজকে কাঁদলো,

এটা দেখতে আমার খুব হাস্যকর লেগেছে। আপনি সিনিয়র মানুষ, অভিনয় করে কাঁদতেছেন কেন! কি দরকার ভাই আপনার? অথচ সহযোগী যাচাইয়ের ফর্মে কিন্তু ওনার স্বাক্ষর আছে, ওই ফাইলও আছে আমার কাছে।

শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও শিমু হত্যাকাণ্ড ইস্যুতে জায়েদ খান বলেন, আমি নামধরেই বলতে চাই যে রিয়াজ ভাই কাঞ্চন ভাই আপনারা সম্মানিত মানুষ। এই নোংরামীগুলো কি আপনারা দেখছেন না? এগুলো কেন বন্ধ করছেন না আপনারা? আমি কাঞ্চন ভাইকে আবারও বলবো,

আপনি একুশে পদক পাওয়া সম্মানিত লোক, এই নোংরামি বন্ধ করেন। এই রিয়াজ ভাই আজকে অভিনয় করে মেকি কান্না কাঁদতেছে। অথচ এই শিমু-খোকনদের মত শিল্পীদের সহযোগী তালিকায় নেয়ার সময় তো কাঞ্চন ভাই, রিয়াজ ভাই, ফারুক ভাই, আলমগীর ভাই সবাই ছিলেন।

এটা সবাই জানে। তখন তো তারা কেউ কোনো আপত্তি করেননি।রিয়াজ প্রসঙ্গে জায়েদ খান আরও বলেন, সহযোগীদের সংখ্যা নিয়ে মামলা চলমান, কোর্টে বিচারাধীন। এটা নিয়ে কেন আন্দোলন হবে? এই ইস্যুতে যে রিয়াজ ভাই আজকে কাঁদলো,

এটা দেখতে আমার খুব হাস্যকর লেগেছে। আপনি সিনিয়র মানুষ, অভিনয় করে কাঁদতেছেন কেন! কি দরকার ভাই আপনার? অথচ সহযোগী যাচাইয়ের ফর্মে কিন্তু ওনার স্বাক্ষর আছে, ওই ফাইলও আছে আমার কাছে।

About admin

Check Also

সব ভুলে আ’পন ঠি’কানায় ফি’রছেন চি’ত্রনায়িকা অপু বি’শ্বাস

চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর সিঙ্গেল আছেন ঢাকাই নায়িকা অপু বিশ্বাস। ছেলে আব্রাম খান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.