ভালো রেজাল্টের লোভ দেখিয়ে ছাত্রদের সাথে মিলন করতেন সুন্দরী শিক্ষিকা!

পাস করতে চাও? তাহলে অবসরে আমা’র বাসায় এসো। এভাবেই ছাত্রদের নিজের বাড়িতে ডেকে নিতেন এক স্কুল শিক্ষিকা। যে ছাত্র বাসায় যেতে রাজি হন না, তাকে ফেল করিয়ে দিতেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে কলম্বিয়ায়। খবর ডেইলি মেইল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই শিক্ষিকার নাম ইওকাসতা। বয়স চল্লিশেরও বেশি।
ওই শিক্ষিকা শুধু পাস করানোর জন্যই নয়, ভালো ফলাফলের লোভ দেখিয়েও ছাত্রদের বাড়িতে ডেকে নিতেন। রাজি না হলে ফেল করিয়ে দেয়ার ভয় দেখাতেন তিনি।

শুধু তাই নয়, ছেলেদের ওয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে গভীর রাতে ওই শিক্ষিকা যেসব ছবি পাঠাতেন তা অবশ্য বর্ণনার যোগ্য নয়।শিক্ষিকার এই অনাচার এক ছাত্রের মাধ্যমে প্রকাশ পায়। ঘটনা প্রকাশের পর ইওকাসতার স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছেন।ছাত্রদের ওপর যৌ’ন হয়রানির অ’ভি’যোগে ইওকাসতাকে ৪০ বছরের কারা’দ’ণ্ড দিয়েছে দেশটির আ’দালত।

পাস করতে চাও? তাহলে অবসরে আমা’র বাসায় এসো।’ এভাবেই ছাত্রদের নিজের বাড়িতে ডেকে নিতেন এক স্কুল শিক্ষিকা। যে ছাত্র বাসায় যেতে রাজি হন না, তাকে ফেল করিয়ে দিতেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে কলম্বিয়ায়। খবর ডেইলি মেইল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই শিক্ষিকার নাম ইওকাসতা। বয়স চল্লিশেরও বেশি।ওই শিক্ষিকা শুধু পাস করানোর জন্যই নয়, ভালো ফলাফলের লোভ দেখিয়েও ছাত্রদের বাড়িতে ডেকে নিতেন। রাজি না হলে ফেল করিয়ে দেয়ার ভয় দেখাতেন তিনি।

শুধু তাই নয়, ছেলেদের ওয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে গভীর রাতে ওই শিক্ষিকা যেসব ছবি পাঠাতেন তা অবশ্য বর্ণনার যোগ্য নয়।শিক্ষিকার এই অনাচার এক ছাত্রের মাধ্যমে প্রকাশ পায়। ঘটনা প্রকাশের পর ইওকাসতার স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছেন।ছাত্রদের ওপর যৌ’ন হয়রানির অ’ভিযোগে ইওকাসতাকে ৪০ বছরের কারা’দ’ণ্ড দিয়েছে দেশটির আ’দালত।

শুধু তাই নয়, ছেলেদের ওয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে গভীর রাতে ওই শিক্ষিকা যেসব ছবি পাঠাতেন তা অবশ্য বর্ণনার যোগ্য নয়।শিক্ষিকার এই অনাচার এক ছাত্রের মাধ্যমে প্রকাশ পায়। ঘটনা প্রকাশের পর ইওকাসতার স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছেন।ছাত্রদের ওপর যৌ’ন হয়রানির অ’ভি’যোগে ইওকাসতাকে ৪০ বছরের কারা’দ’ণ্ড দিয়েছে দেশটির আ’দালত।

পাস করতে চাও? তাহলে অবসরে আমা’র বাসায় এসো।’ এভাবেই ছাত্রদের নিজের বাড়িতে ডেকে নিতেন এক স্কুল শিক্ষিকা। যে ছাত্র বাসায় যেতে রাজি হন না, তাকে ফেল করিয়ে দিতেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে কলম্বিয়ায়। খবর ডেইলি মেইল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই শিক্ষিকার নাম ইওকাসতা। বয়স চল্লিশেরও বেশি।ওই শিক্ষিকা শুধু পাস করানোর জন্যই নয়, ভালো ফলাফলের লোভ দেখিয়েও ছাত্রদের বাড়িতে ডেকে নিতেন। রাজি না হলে ফেল করিয়ে দেয়ার ভয় দেখাতেন তিনি।

শুধু তাই নয়, ছেলেদের ওয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টে গভীর রাতে ওই শিক্ষিকা যেসব ছবি পাঠাতেন তা অবশ্য বর্ণনার যোগ্য নয়।শিক্ষিকার এই অনাচার এক ছাত্রের মাধ্যমে প্রকাশ পায়। ঘটনা প্রকাশের পর ইওকাসতার স্বামী তাকে ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছেন।ছাত্রদের ওপর যৌ’ন হয়রানির অ’ভিযোগে ইওকাসতাকে ৪০ বছরের কারা’দ’ণ্ড দিয়েছে দেশটির আ’দালত।

About admin

Check Also

যে ৫ ধরণে’র না’রী থেকে সাবধান থাকবেন পুরুষে’রা!

নারীদের প্রতি পুরুষের আকর্ষণ থাকা’টাই স্বাভাবিক। আর এমনই আকর্ষন থেকেই প্রেম করেছিলেন হয়তো নিজের পরিচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.