মুসকান ‘আল্লাহু আকবার’ বলে উসকানি দিয়েছে: কর্ণাটকের শিক্ষামন্ত্রী

ভারতের কর্ণাটকের প্রি-ইউনি_ভার্সিটি কলেজে একদল উগ্র হিন্দুত্ব’বাদী তরুণের সামনে ‘আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি তো’লা সাহসী শিক্ষার্থী বিবি মুসকান খানের প্রশংসায় যখন পঞ্চ’মুখ সারা বিশ্ব,

তখন উল্টো তার বিরুদ্ধেই উসকানি দেওয়ার অভি’যোগ তুললেন রাজ্য_টির শিক্ষামন্ত্রী বি সি নাগেশ। শিক্ষা’মন্ত্রীর অভিযোগ, মুসকানই ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দেওয়া তরুণদের উস’কে দিয়েছে। বুধবার ভারতীয় সংবাদ’মাধ্যম

এন’ডি’টিভির খবরে বলা হয়েছে, কর্ণাট’কের প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষামন্ত্রী বি সি নাগেশ গেরুয়া উত্ত’রীয় পরা তরুণদের পক্ষ নিয়ে বলেছেন, ‘মেয়ে’টিকে ঘেরাও করার ইচ্ছা ছিল না তাদের (তরুণ’দের)।

কিন্তু সে (মুসকান) যখন চিৎকার শুরু করলো… সে যখন ‘আ ল্লা হু আ ক বা র’ বলে চিৎকার করছিল, তখন তার পাশে এক’জন শিক্ষার্থীও ছিল না। সে (মুসকান) কেন কলেজ ক্যাম্পাসে আল্লাহু আকবার বলে উস’কানি দিলো?

ক্যাম্পাসে আল্লাহু আকবার বা জয় শ্রী_রাম বলতে তো আর উৎসাহিত করতে পারি না।’ তিনি বলেন, কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নিতে পারে না। সরকার কোনো অপরাধী’কেই ছাড়বে না।

কর্ণাট’কের মান্দিয়ার প্রি-ইউনি_ভার্সিটি কলেজে উগ্র হিন্দুত্ব’বাদীদের সঙ্গে একা মুসকানের মুখোমুখি হওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ_মাধ্যমগুলোতে রীতিমতো ঝড় তুলেছে। এর সঙ্গে ভারতের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান’গুলোতে হিজাব ইস্যুতে বিতর্ক ক্রমেই বাড়ছে। ভিডিও’তে দেখা যায়,

মুসকান কলেজ ক্যাম্পাসে তার স্কুটার দাঁ’ড় করিয়ে ক্লাসের দিকে যাচ্ছিল। এসময় তাকে দেখে একদল তরুণ ‘জয় শ্রী_রাম’ বলে স্লোগান দিতে দিতে তার দিকে এগিয়ে আসতে থা’কে।

কিন্তু তাতে বিন্দু:মাত্র ভয় না পেয়ে এতগুলো ছেলের বিপরীতে একা দাঁড়ি’য়েই সাহসের সঙ্গে হাত উঁচিয়ে ‘আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি তুলে পাল্টা চিৎকার করতে থাকে মুস_কান। কিছুক্ষ’ণের মধ্যে কলেজের কর্মকর্তারা এগিয়ে এসে তাকে ভেতরে নিয়ে যান। মুসকান পরে ভারতীয় সংবাদ”মাধ্যমকে বলেছে,

‘‘আমি যখন কলেজে ঢুক’ছিলাম, তখন বা’ধা দেওয়া হয়। জিজ্ঞেস করা হয়, আমি কেন বোরখা পরে এসে’ছি? কিন্তু আমি এ সব নিয়ে মোটেও চি’ন্তিত নই।’’ সে দিনের ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে মুসকান দাবি করেন,

‘‘আমাকে দেখেই ‘জয় শ্রী_রাম’ স্লোগান দেওয়া শুরু হয়। আমিও পাল্টা ‘আ ল্লা হু আ ক ব র’ স্লোগান দিতে থাকি।’’ তাঁর দা’বি, উপস্থিত গেরু’য়া উত্তরীয় পরিহিতদের কয়েক জন’কে তিনি চিনতে পেরে’ছিলেন। কারণ তাঁরাও মুসকানের সহ’পাঠী। তবে বেশির ভাগই বহিরা’গত।

কর্ণাট’কের মান্দিয়ার প্রি-ইউনি_ভার্সিটি কলেজে উগ্র হিন্দুত্ব’বাদীদের সঙ্গে একা মুসকানের মুখোমুখি হওয়ার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ_মাধ্যমগুলোতে রীতিমতো ঝড় তুলেছে। এর সঙ্গে ভারতের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান’গুলোতে হিজাব ইস্যুতে বিতর্ক ক্রমেই বাড়ছে। ভিডিও’তে দেখা যায়,

মুসকান কলেজ ক্যাম্পাসে তার স্কুটার দাঁ’ড় করিয়ে ক্লাসের দিকে যাচ্ছিল। এসময় তাকে দেখে একদল তরুণ ‘জয় শ্রী_রাম’ বলে স্লোগান দিতে দিতে তার দিকে এগিয়ে আসতে থা’কে।

কিন্তু তাতে বিন্দু:মাত্র ভয় না পেয়ে এতগুলো ছেলের বিপরীতে একা দাঁড়ি’য়েই সাহসের সঙ্গে হাত উঁচিয়ে ‘আল্লাহু আকবার’ ধ্বনি তুলে পাল্টা চিৎকার করতে থাকে মুস_কান। কিছুক্ষ’ণের মধ্যে কলেজের কর্মকর্তারা এগিয়ে এসে তাকে ভেতরে নিয়ে যান। মুসকান পরে ভারতীয় সংবাদ”মাধ্যমকে বলেছে,

‘‘আমি যখন কলেজে ঢুক’ছিলাম, তখন বা’ধা দেওয়া হয়। জিজ্ঞেস করা হয়, আমি কেন বোরখা পরে এসে’ছি? কিন্তু আমি এ সব নিয়ে মোটেও চি’ন্তিত নই।’’ সে দিনের ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে মুসকান দাবি করেন,

‘‘আমাকে দেখেই ‘জয় শ্রী_রাম’ স্লোগান দেওয়া শুরু হয়। আমিও পাল্টা ‘আ ল্লা হু আ ক ব র’ স্লোগান দিতে থাকি।’’ তাঁর দা’বি, উপস্থিত গেরু’য়া উত্তরীয় পরিহিতদের কয়েক জন’কে তিনি চিনতে পেরে’ছিলেন। কারণ তাঁরাও মুসকানের সহ’পাঠী। তবে বেশির ভাগই বহিরা’গত।

About admin

Check Also

নিজ হাতে পবিত্র কাবা পরিষ্কার করলেন সৌদি যুবরাজ

এবার সৌদি আরবের মক্কা নগরীর গ্র্যান্ড মসজিদের পবিত্র কাবা শরীফ নিজ হাতে পরিষ্কার করেছেন সৌদি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.