যুক্তরাষ্ট্র আমাকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী থেকে সরাতে চাইছে: ইমরান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দাবি করেছে, যুক্তরাষ্ট্র আমাকে হুমকি দিয়েছে এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। ‍বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে দীর্ঘ এক ভাষণ দিয়েছেন ইমরান। সেখানে পাকিস্তানের বর্তমান সরকারকে উচ্ছেদে যুক্তরাষ্ট্র ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। খবর- দ্যা গার্ডিয়ান।

ইমরান তার ভাষণে দাবি করেন, বিদেশি রাষ্ট্র ষড়যন্ত্র করে তাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্য বিরোধী দলগুলোর কাছে গোপন চিঠি লিখেছিল। এই চিঠির একটি কপি তার সরকারের হাতে এসে পৌঁছেছে। ভাষণের এক পর্যায়ে মুখ ফস্কে ওই বিদেশি রাষ্ট্রের নাম বলে ফেলেন প্রধানমন্ত্রী। ইমরান খান বলেন,

‘আমি আজ এখানে এসেছি কারণ ৭ বা ৮ মার্চ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র … মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নয় … আমরা একটি বার্তা পেয়েছি। একটি স্বাধীন দেশের জন্য, এই ধরনের বার্তা (শুধুমাত্র) বরং প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নয়, বরং দেশের বিরুদ্ধে।

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, ষড়যন্ত্রকারীদের কাছে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছিল ‘ইমরান খান যদি প্রধানমন্ত্রী থাকেন তবে আমাদের সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং আপনারা সমস্যায় পড়বেন।’রাশিয়ার পক্ষে যাওয়াতেই তাকে ক্ষমতাচ্যুতের ষড়যন্ত্র করা হয় দাবি করে পাকপ্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আজ আমার জাতিকে বলছি,

এই হলো আমাদের অবস্থা। আমরা ২২ কোটি মানুষের একটি জাতি এবং অন্য একটি দেশ – এবং কোনো কারণ ছাড়া হুমকি দিচ্ছে। তারা বলেছে, পররাষ্ট্র দপ্তর ও সামরিক নেতৃত্বের সঙ্গে পরামর্শের পর ইমরান খান রাশিয়ায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন

তিনি বলেন, ‘আমাদের রাষ্ট্রদূত তাদের জানিয়েছিলেন রাশিয়া সফরের সিদ্ধান্তটি পরামর্শের পরে নেওয়া হয়। কিন্তু তারা তা মানতে অস্বীকার করেছে এবং বলেছে , এটি শুধুমাত্র ইমরান খানের কারণে হয়েছে এবং তিনি থাকলে আমাদের সম্পর্ক ভাল হতে পারে না। তারা আসলে যা বলছে তা হচ্ছে, ইমরান খানের পরিবর্তে যে কেউ ক্ষমতায় গেলে তাদের সমস্যা নেই।’

ইমরান খান তার ভাষণে আরও বলেছেন, আমি যখন রাজনীতিতে আসি তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছি কখনো মাথা নত করব না এবং দেশকেও কারো কাছে মাথা নত করতে দেব না। তার মানে আমি আমার দেশকে কখনো কারো দাস হতে দেব না।

ইমরান খানকে সরিয়ে দিতে সবচেয়ে বেশি দৌড়-ঝাপ করছেন মুসলিম লিগ-নওয়াজের প্রধান শাহবাজ শরীফ। তিনি পাকিস্তানের বিরোধী দলীয় নেতা। এই শাহবাজ শরীফকে রাজকীয় দাস হিসেবে অবহিত করেন ইমরান খান। এ ব্যাপারে ইমরান খান বলেন, বিদেশীরা শাহবাজ শরীফ, ফজলুর রেহমান এবং আসিফ আলী জারদারির সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলেছে। কারণ তারা জানে তাদের সম্পত্তি ও টাকা কোথায় আছে।

About admin

Check Also

বুকের ঘাম বিক্রি করে কোটিপতি অভিনেত্রী!(ভিডিও)

সূর্যের প্রখর রোদে বসে রয়েছেন লাস্যময়ী অভিনেত্রী। তাঁর পুরো শরীর ঘামে ভিজে যাচ্ছে। কিন্তু, এটাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.