৩০ বছর আগে বাংলাদেশের মত দেশের রাস্তায় প্রেমিককে চুমু খেয়েছিলাম: তসলিমা

প্রেমজীবনে কিভাবে মগ্ন ছিলেন সে বিষয়টি নিজের ফলোয়ারদের সামনে নিয়ে এসেছেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। প্রেমজীবনে সমাজের কোনো তোয়াক্কা করেননি তিনি। পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর ও আনন্দের এই অনুভূতির কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন তিনি।

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে একটি পোস্ট শেয়ার করেন তসলিমা। ২০১৬ সালের একটি পোস্ট নতুন করে ভক্তদের সামনে আনেন তিনি।

সেই পোস্টে তিনি লেখেন, তিরিশ বছর আগে আমি আমার প্রেমিককে রাস্তায়, রেস্তোরাঁয় চুমু খেয়েছিলাম বাংলাদেশের মতো দেশে।’ আর? ইউরোপের দেশগুলোয় হাটে মাঠে ঘাটে ইউরোপীয় প্রেমিককে তো চুমু খেয়েইছেন। ঘোর পূর্ণিমা-রাতে যৌনতায় মেতেছেন নির্জন সমুদ্রপাড়ে!

তসলিমা নাসরিন লেখেন, যৌন জীবন যাপন করেছেন চাঁদের আলোয় নিবিড় অরণ্যে। কারণ, তার কাছে যৌনতা সব সময়ই খুব সুন্দর। নারী-পুরুষ, নারী-নারী, পুরুষ-পুরুষ, ট্রান্সজেন্ডার, কুইয়ার নির্বিশেষে। আমি বুঝি না, বাইরে জ্যোৎস্নায় ভেসে যাচ্ছে পৃথিবী, আর মানুষ কি না চারদেয়ালের ভেতর দরজায় খিল এঁটে সঙ্গম করে।

তিনি আরও লেখেন, প্রকৃতির কাছ থেকে মানুষ অনেক দূরে সরে গিয়েছে, আর কত দূরে সরবে! একই সঙ্গে তার আক্ষেপ, মানুষগুলো দিন দিন দুই পায়র যন্ত্র মানব হয়ে উঠছে। সঙ্গমগুলোও যেন আর সঙ্গম নেই! সব যেন ধর্ষণ হয়ে উঠছে। ভালবাসাও হয়ে উঠছে ঈর্ষা।

প্রেমজীবনে কিভাবে মগ্ন ছিলেন সে বিষয়টি নিজের ফলোয়ারদের সামনে নিয়ে এসেছেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। প্রেমজীবনে সমাজের কোনো তোয়াক্কা করেননি তিনি। পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর ও আনন্দের এই অনুভূতির কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন তিনি।

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজে একটি পোস্ট শেয়ার করেন তসলিমা। ২০১৬ সালের একটি পোস্ট নতুন করে ভক্তদের সামনে আনেন তিনি।

সেই পোস্টে তিনি লেখেন, তিরিশ বছর আগে আমি আমার প্রেমিককে রাস্তায়, রেস্তোরাঁয় চুমু খেয়েছিলাম বাংলাদেশের মতো দেশে।’ আর? ইউরোপের দেশগুলোয় হাটে মাঠে ঘাটে ইউরোপীয় প্রেমিককে তো চুমু খেয়েইছেন। ঘোর পূর্ণিমা-রাতে যৌনতায় মেতেছেন নির্জন সমুদ্রপাড়ে!

তসলিমা নাসরিন লেখেন, যৌন জীবন যাপন করেছেন চাঁদের আলোয় নিবিড় অরণ্যে। কারণ, তার কাছে যৌনতা সব সময়ই খুব সুন্দর। নারী-পুরুষ, নারী-নারী, পুরুষ-পুরুষ, ট্রান্সজেন্ডার, কুইয়ার নির্বিশেষে। আমি বুঝি না, বাইরে জ্যোৎস্নায় ভেসে যাচ্ছে পৃথিবী, আর মানুষ কি না চারদেয়ালের ভেতর দরজায় খিল এঁটে সঙ্গম করে।

তিনি আরও লেখেন, প্রকৃতির কাছ থেকে মানুষ অনেক দূরে সরে গিয়েছে, আর কত দূরে সরবে! একই সঙ্গে তার আক্ষেপ, মানুষগুলো দিন দিন দুই পায়র যন্ত্র মানব হয়ে উঠছে। সঙ্গমগুলোও যেন আর সঙ্গম নেই! সব যেন ধর্ষণ হয়ে উঠছে। ভালবাসাও হয়ে উঠছে ঈর্ষা।

About admin

Check Also

নিজ হাতে পবিত্র কাবা পরিষ্কার করলেন সৌদি যুবরাজ

এবার সৌদি আরবের মক্কা নগরীর গ্র্যান্ড মসজিদের পবিত্র কাবা শরীফ নিজ হাতে পরিষ্কার করেছেন সৌদি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.