ইফতারির সময় বিদ্যুৎ থাকেনা; এজিএমকে হুমকি দিয়ে ভাইরাল মেম্বার

সম্প্রতি মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএম এর সাথে গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউপি সদস্য শাহজাহান আলীর মুঠোফোনে কথা বলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে সেই ইউপি সদস্যকে দেখা যায় এজিএমের সাথে ফোনে কথা বলার সময় মেজাজ হারিয়ে অকথ্য গালি দিতে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ইউপি সদস্য শাহজাহান আলী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএমকে তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ না থাকলে অফিস থেকে তুলে এনে মারার হুমকি দেন।

ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, রমজানের শুরু থেকে প্রত্যেক দিন তারাবির নামাজ আর ইফতারির সময় বিদ্যুৎ চলে যায়। এতে এলাকাবাসী চরম ভোগান্তিতে পড়ে। সারাদিন রোজা রাখার পর তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ পাওয়া যায় না। বিদ্যুৎ নিয়ে কোন তালবাহানা না করতে কড়াভাবে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।তিনি আরও বলেন, বিদ্যুৎ না দিতে পারলে রিজাইন দিয়ে চলে যান।

সম্প্রতি মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএম এর সাথে গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউপি সদস্য শাহজাহান আলীর মুঠোফোনে কথা বলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে সেই ইউপি সদস্যকে দেখা যায় এজিএমের সাথে ফোনে কথা বলার সময় মেজাজ হারিয়ে অকথ্য গালি দিতে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ইউপি সদস্য শাহজাহান আলী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএমকে তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ না থাকলে অফিস থেকে তুলে এনে মারার হুমকি দেন।

ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, রমজানের শুরু থেকে প্রত্যেক দিন তারাবির নামাজ আর ইফতারির সময় বিদ্যুৎ চলে যায়। এতে এলাকাবাসী চরম ভোগান্তিতে পড়ে। সারাদিন রোজা রাখার পর তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ পাওয়া যায় না। বিদ্যুৎ নিয়ে কোন তালবাহানা না করতে কড়াভাবে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।তিনি আরও বলেন, বিদ্যুৎ না দিতে পারলে রিজাইন দিয়ে চলে যান।

সম্প্রতি মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএম এর সাথে গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউপি সদস্য শাহজাহান আলীর মুঠোফোনে কথা বলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে সেই ইউপি সদস্যকে দেখা যায় এজিএমের সাথে ফোনে কথা বলার সময় মেজাজ হারিয়ে অকথ্য গালি দিতে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ইউপি সদস্য শাহজাহান আলী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বামুন্দী সাব জোনাল অফিসের এজিএমকে তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ না থাকলে অফিস থেকে তুলে এনে মারার হুমকি দেন।

ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, রমজানের শুরু থেকে প্রত্যেক দিন তারাবির নামাজ আর ইফতারির সময় বিদ্যুৎ চলে যায়। এতে এলাকাবাসী চরম ভোগান্তিতে পড়ে। সারাদিন রোজা রাখার পর তারাবির নামাজ ও ইফতারির সময় বিদ্যুৎ পাওয়া যায় না। বিদ্যুৎ নিয়ে কোন তালবাহানা না করতে কড়াভাবে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।তিনি আরও বলেন, বিদ্যুৎ না দিতে পারলে রিজাইন দিয়ে চলে যান।

About admin

Check Also

স্যার আমি আস্তে করি, চেষ্টা করি যেন বেশি ব্যথা না পায়

ক্লাস রুটিন আর পরীক্ষার রুটিনের বাইরে ভিন্ন রকম এক রুটিন চালু করেছে রাঙ্গুনিয়ার এক কওমি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.