‘সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’ দাবি করছে চুয়াডাঙ্গার ‘গবেষক’আমানতউল্লাহ

সূর্যের চারপাশে পৃথিবীর আবর্তন এক বিস্ময়কর ঘটনা – এটি কেবল পরিবর্তনের জন্যই নয়, আমাদের গ্রহে জীবনের অস্তিত্বও সরবরাহ করে।এদিকে, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নাগদাহ ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামের

‘গবেষক’ আমানতউল্লাহ। তার দাবি, পৃথিবীকেন্দ্রিক বিশ্বতত্ত্বের মডেল আবিষ্কার করেছেন তিনি। আশ্চর্যজনক বিষয় হলো, তার গবেষণার মূল বিষয় ‘পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’।

আলমডাঙ্গা পাইকপাড়া গ্রামের জরাজীর্ণ একটি ঘরে বসে ২৬ বছর ধরে তিনি গবেষণার পর পৃথিবীকেন্দ্রিক ‘বিশ্বতত্ত্বের মডেল’ আবিষ্কার করেন। দূর-দূরান্ত থেকে সাধারণ মানুষ তার এ আবিষ্কার দেখতে ছুটে আসেন। বিভিন্ন মেলায় তার বিজ্ঞান বিষয়ের আবিষ্কার প্রদর্শন করেন।

আমানতউল্লাহর মডেল অনুযায়ী, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না বরং সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। তিনি বলেন, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ৪০০ বছর ধরে আমরা সেই মিথ্যা আঁকড়ে ধরে আছি। পৃথিবী নয়, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে–এটাই চিরন্তন সত্য।

সূর্যের চারপাশে পৃথিবীর আবর্তন এক বিস্ময়কর ঘটনা – এটি কেবল পরিবর্তনের জন্যই নয়, আমাদের গ্রহে জীবনের অস্তিত্বও সরবরাহ করে।এদিকে, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নাগদাহ ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামের

‘গবেষক’ আমানতউল্লাহ। তার দাবি, পৃথিবীকেন্দ্রিক বিশ্বতত্ত্বের মডেল আবিষ্কার করেছেন তিনি। আশ্চর্যজনক বিষয় হলো, তার গবেষণার মূল বিষয় ‘পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’।

আলমডাঙ্গা পাইকপাড়া গ্রামের জরাজীর্ণ একটি ঘরে বসে ২৬ বছর ধরে তিনি গবেষণার পর পৃথিবীকেন্দ্রিক ‘বিশ্বতত্ত্বের মডেল’ আবিষ্কার করেন। দূর-দূরান্ত থেকে সাধারণ মানুষ তার এ আবিষ্কার দেখতে ছুটে আসেন। বিভিন্ন মেলায় তার বিজ্ঞান বিষয়ের আবিষ্কার প্রদর্শন করেন।

আমানতউল্লাহর মডেল অনুযায়ী, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না বরং সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। তিনি বলেন, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ৪০০ বছর ধরে আমরা সেই মিথ্যা আঁকড়ে ধরে আছি। পৃথিবী নয়, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে–এটাই চিরন্তন সত্য।

সূর্যের চারপাশে পৃথিবীর আবর্তন এক বিস্ময়কর ঘটনা – এটি কেবল পরিবর্তনের জন্যই নয়, আমাদের গ্রহে জীবনের অস্তিত্বও সরবরাহ করে।এদিকে, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নাগদাহ ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামের

‘গবেষক’ আমানতউল্লাহ। তার দাবি, পৃথিবীকেন্দ্রিক বিশ্বতত্ত্বের মডেল আবিষ্কার করেছেন তিনি। আশ্চর্যজনক বিষয় হলো, তার গবেষণার মূল বিষয় ‘পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে’।

আলমডাঙ্গা পাইকপাড়া গ্রামের জরাজীর্ণ একটি ঘরে বসে ২৬ বছর ধরে তিনি গবেষণার পর পৃথিবীকেন্দ্রিক ‘বিশ্বতত্ত্বের মডেল’ আবিষ্কার করেন। দূর-দূরান্ত থেকে সাধারণ মানুষ তার এ আবিষ্কার দেখতে ছুটে আসেন। বিভিন্ন মেলায় তার বিজ্ঞান বিষয়ের আবিষ্কার প্রদর্শন করেন।

আমানতউল্লাহর মডেল অনুযায়ী, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে না বরং সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে। তিনি বলেন, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে ঘোরে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ৪০০ বছর ধরে আমরা সেই মিথ্যা আঁকড়ে ধরে আছি। পৃথিবী নয়, সূর্য পৃথিবীর চারদিকে ঘোরে–এটাই চিরন্তন সত্য।

About admin

Check Also

একদিনের তেল দিয়ে দু’দিন খাবেন: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

খোলাবাজারে সয়াবিন তেলের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির প্রেক্ষিতে একদিনের তেল দিয়ে দু’দিন খাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব …

Leave a Reply

Your email address will not be published.