মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা!

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ভুক্ত আসামি ধরতে গিয়ে জুয়াড়িদের হামলার শিকার হয়েছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার ছয় পুলিশ কর্মকর্তা। তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে থানায় নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে উপজেলার ভাংনামারি ইউনিয়নের খোদাবক্সপুর চরভাবখালি গ্রামে।

আজ শুক্রবার হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।আহতরা হলেন- এসআই শফিক আহম্মেদ, মো. এমদাদ ও আওয়ালাদ হোসেন। এ ছাড়া এএসআই মো. মোস্তাক, মো. মিজান এবং মো. কামরুল।

ভাংনামারি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নেজামুল হক জানান, ১০ থেকে ১২ দিন ধরে চরভাবখালি ও উজান কাশিয়ারচর এলাকার লোকজনের সঙ্গে ঘাটের বালু উত্তোলন নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে একটি পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

বৃহস্পতিবার রাতে চর ভাবখালি কয়েকজন একটি দোকানে বসে তাস খেলছিল। এর মধ্যে একদল পুলিশ সাদা পোশাকে ওই এলাকায় আসে। তাদেরকে প্রতিপক্ষ মনে করে। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে।

গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, গোপন তথ্যের ভিক্তিতে জানতে পারি ওয়ারেন্টভুক্ত এক আসামি চরভাবানীপুর এলাকায় বসে জুয়া খেলছে। পরে আমার ছয়জন পুলিশ কর্মকর্তা সেখানে গিয়ে অভিযান চালাই।

এ সময় জুয়াড়িরা মসজিদের মাইক ব্যবহার করে ঘোষণা দিয়ে এলাকার লোকজন জড়ো করে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। হামলার ঘটনায় তিন এসআই ও তিন এএসআই আহত হয়েছেন।ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার মো.আহমার উজ্জামান কালের কণ্ঠকে বলেন, বিষয়টি শুনেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ভুক্ত আসামি ধরতে গিয়ে জুয়াড়িদের হামলার শিকার হয়েছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার ছয় পুলিশ কর্মকর্তা। তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে থানায় নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে উপজেলার ভাংনামারি ইউনিয়নের খোদাবক্সপুর চরভাবখালি গ্রামে।

আজ শুক্রবার হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।আহতরা হলেন- এসআই শফিক আহম্মেদ, মো. এমদাদ ও আওয়ালাদ হোসেন। এ ছাড়া এএসআই মো. মোস্তাক, মো. মিজান এবং মো. কামরুল।

ভাংনামারি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নেজামুল হক জানান, ১০ থেকে ১২ দিন ধরে চরভাবখালি ও উজান কাশিয়ারচর এলাকার লোকজনের সঙ্গে ঘাটের বালু উত্তোলন নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে একটি পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

বৃহস্পতিবার রাতে চর ভাবখালি কয়েকজন একটি দোকানে বসে তাস খেলছিল। এর মধ্যে একদল পুলিশ সাদা পোশাকে ওই এলাকায় আসে। তাদেরকে প্রতিপক্ষ মনে করে। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে।

গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, গোপন তথ্যের ভিক্তিতে জানতে পারি ওয়ারেন্টভুক্ত এক আসামি চরভাবানীপুর এলাকায় বসে জুয়া খেলছে। পরে আমার ছয়জন পুলিশ কর্মকর্তা সেখানে গিয়ে অভিযান চালাই।

এ সময় জুয়াড়িরা মসজিদের মাইক ব্যবহার করে ঘোষণা দিয়ে এলাকার লোকজন জড়ো করে পুলিশের ওপর হামলা চালায়। হামলার ঘটনায় তিন এসআই ও তিন এএসআই আহত হয়েছেন।ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার মো.আহমার উজ্জামান কালের কণ্ঠকে বলেন, বিষয়টি শুনেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সূত্রঃ kalerkantho

About admin

Check Also

শঙ্কামুক্ত বর-কনে, ক্ষণে ক্ষণে কেঁদে উঠছেন

রাজধানীর উত্তরায় বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট প্রকল্পের ফ্লাইওভারের ভায়াডাক্ট চাপায় পিষ্ট প্রাইভেটকারে বেঁচে যাওয়া নবদম্পতি শঙ্কামুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.