একসময় চাচাতো ভাইয়ের কাছে জুতা ধার চেয়েও পাননি বাবর আজম

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বাবর আজম জানিয়েছেন, ক্যারিয়ার শুরুর দিনগুলোতে একবার এক চাচাতো ভাইয়ের কাছে জুতা ধার চেয়েও পাননি তিনি। বাবরের এমন মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন তার চাচাতো ভাই উমর আকমল।

পাকিস্তানের এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, কে জুতা দিতে চায়নি বাবরকে? নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের শুরুর দিককার কষ্টের কথা জানিয়ে বাবর বলেছিলেন, ‘আমি আমার চাচাতো ভাইকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, সে আমাকে এক জোড়া জগারস দিতে পারবে কি না। কিন্তু সে আমাকে মানা করে দেয় এবং বলে তার কাছে নেই।’

বাবর আরও বলেন, ‘আমি তখন বুঝতে পেরেছিলাম আমি এমন কিছু বলে ফেলেছি যা বলা ঠিক হয়নি। আমার সেদিন জুতা চাওয়াই ঠিক হয়নি।’ পাকিস্তানের বর্তমান অধিনায়কের এই দাবির বিপরীতে তার চাচাতো ভাই উমর আকমল বলেছেন, ‘আমার কোনো ধারণাই নেই আমাদের কোন চাচাতো ভাই বাবরকে জুতা ধার দিতে চায়নি।’

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বাবর আজম জানিয়েছেন, ক্যারিয়ার শুরুর দিনগুলোতে একবার এক চাচাতো ভাইয়ের কাছে জুতা ধার চেয়েও পাননি তিনি। বাবরের এমন মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন তার চাচাতো ভাই উমর আকমল।

পাকিস্তানের এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, কে জুতা দিতে চায়নি বাবরকে? নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের শুরুর দিককার কষ্টের কথা জানিয়ে বাবর বলেছিলেন, ‘আমি আমার চাচাতো ভাইকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, সে আমাকে এক জোড়া জগারস দিতে পারবে কি না। কিন্তু সে আমাকে মানা করে দেয় এবং বলে তার কাছে নেই।’

বাবর আরও বলেন, ‘আমি তখন বুঝতে পেরেছিলাম আমি এমন কিছু বলে ফেলেছি যা বলা ঠিক হয়নি। আমার সেদিন জুতা চাওয়াই ঠিক হয়নি।’ পাকিস্তানের বর্তমান অধিনায়কের এই দাবির বিপরীতে তার চাচাতো ভাই উমর আকমল বলেছেন, ‘আমার কোনো ধারণাই নেই আমাদের কোন চাচাতো ভাই বাবরকে জুতা ধার দিতে চায়নি।’

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বাবর আজম জানিয়েছেন, ক্যারিয়ার শুরুর দিনগুলোতে একবার এক চাচাতো ভাইয়ের কাছে জুতা ধার চেয়েও পাননি তিনি। বাবরের এমন মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন তার চাচাতো ভাই উমর আকমল।

পাকিস্তানের এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, কে জুতা দিতে চায়নি বাবরকে? নিজের খেলোয়াড়ি জীবনের শুরুর দিককার কষ্টের কথা জানিয়ে বাবর বলেছিলেন, ‘আমি আমার চাচাতো ভাইকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, সে আমাকে এক জোড়া জগারস দিতে পারবে কি না। কিন্তু সে আমাকে মানা করে দেয় এবং বলে তার কাছে নেই।’

বাবর আরও বলেন, ‘আমি তখন বুঝতে পেরেছিলাম আমি এমন কিছু বলে ফেলেছি যা বলা ঠিক হয়নি। আমার সেদিন জুতা চাওয়াই ঠিক হয়নি।’ পাকিস্তানের বর্তমান অধিনায়কের এই দাবির বিপরীতে তার চাচাতো ভাই উমর আকমল বলেছেন, ‘আমার কোনো ধারণাই নেই আমাদের কোন চাচাতো ভাই বাবরকে জুতা ধার দিতে চায়নি।’

About admin

Check Also

বাংলাদেশের হারে ইমরুলের ‘মুচকি হাসি’, পরে বললেন ‘পেইজ হ্যাকড হয়েছিল’!

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে অবিশ্বাস্য ব্যর্থতা। তবে সেই ভুলের গন্ডি থেকে বেড়িয়ে ওয়ানডে সিরিজে ঘুরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.