রমজান উপলক্ষে ‘গরিবের সুপারশপ’, চালের কেজি ১ টাকা, তরমুজ ৮ টাকা

বর্তমান সময়ে দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। চড়া দামের কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে হিমশিম খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষ রমজানে পছন্দের ফলও কিনতে পারছেন না।

তাদের জন্য ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন। নিম্নবিত্ত ও সুবিধাবঞ্চিত ক্রেতারা মাত্র ১০ টাকা দিয়ে প্রায় ৫০০ টাকার পণ্য কিনতে পারছেন বিদ্যানন্দের ভ্রাম্যমাণ ‘গরিবের সুপারশপ’ থেকে।

এদিকে বিদ্যানন্দের অন্যান্য কার্যক্রমের মতো গরিবের সুপারশপ নিয়েও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। আজ শনিবার ১৬ এপ্রিল দুপুরে কারওয়ান বাজারে গরিবের সুপারশপে গিয়ে দেখা গেছে, নামমাত্র মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কেনার সুযোগ পাচ্ছে ছিন্নমূল মানুষ। চাল, ডালসহ এক ডজন পণ্য ছিল সুপারশপে।

মাত্র এক টাকায় প্রতি কেজি চাল, মসুর ডাল দুই টাকা, অ্যাংকর ডাল এক টাকা, ছোলা দুই টাকা, খেজুর দুই টাকা, আটা এক টাকা, লবণ এক টাকা, চিনি দুই টাকা, তেল ৩ টাকা, ডিম এক টাকা, বিস্কুট এক টাকা দিয়ে কেনা যাবে এই বাজার থেকে।

একই সঙ্গে মৌসুমি ফল হিসেবে প্রতি পিস তরমুজ আট টাকা, বাঙ্গি দুই টাকা ও ১ টাকায় মিষ্টি কুমড়া কেনার সুযোগ পেয়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। এ ব্যাপারে সংগঠনটি জানায়, এই প্রতীকী মূল্যের মাধ্যমে একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ ১০ টাকার পণ্য কিনতে পারেন, যার বাজার মূল্য প্রায় পাঁচশ টাকা।

এ বিষয়ে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের হেড অব কমিউনিকেশনস সালমান খান ইয়াছিন জানান, রমজান উপলক্ষে প্রতি সপ্তাহে রাজধানীর নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য এই বাজারের ব্যবস্থা থাকছে। বিভিন্ন এলাকার দরিদ্র পরিবার বাছাই করে তালিকাবদ্ধ করে একবার করে বাজার করার সুযোগ দেওয়া হয়।

ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ ও রংপুরে এই বাজারের আয়োজন করা হবে। তিনি আরও বলেন, আসন্ন ঈদ সামনে রেখে ৫ টাকায় ঈদের বাজার বসানোর পরিকল্পনা আছে বিদ্যানন্দের।

বর্তমান সময়ে দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। চড়া দামের কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে হিমশিম খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষ রমজানে পছন্দের ফলও কিনতে পারছেন না।

তাদের জন্য ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন। নিম্নবিত্ত ও সুবিধাবঞ্চিত ক্রেতারা মাত্র ১০ টাকা দিয়ে প্রায় ৫০০ টাকার পণ্য কিনতে পারছেন বিদ্যানন্দের ভ্রাম্যমাণ ‘গরিবের সুপারশপ’ থেকে।

এদিকে বিদ্যানন্দের অন্যান্য কার্যক্রমের মতো গরিবের সুপারশপ নিয়েও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। আজ শনিবার ১৬ এপ্রিল দুপুরে কারওয়ান বাজারে গরিবের সুপারশপে গিয়ে দেখা গেছে, নামমাত্র মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কেনার সুযোগ পাচ্ছে ছিন্নমূল মানুষ। চাল, ডালসহ এক ডজন পণ্য ছিল সুপারশপে।

মাত্র এক টাকায় প্রতি কেজি চাল, মসুর ডাল দুই টাকা, অ্যাংকর ডাল এক টাকা, ছোলা দুই টাকা, খেজুর দুই টাকা, আটা এক টাকা, লবণ এক টাকা, চিনি দুই টাকা, তেল ৩ টাকা, ডিম এক টাকা, বিস্কুট এক টাকা দিয়ে কেনা যাবে এই বাজার থেকে।

একই সঙ্গে মৌসুমি ফল হিসেবে প্রতি পিস তরমুজ আট টাকা, বাঙ্গি দুই টাকা ও ১ টাকায় মিষ্টি কুমড়া কেনার সুযোগ পেয়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। এ ব্যাপারে সংগঠনটি জানায়, এই প্রতীকী মূল্যের মাধ্যমে একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ ১০ টাকার পণ্য কিনতে পারেন, যার বাজার মূল্য প্রায় পাঁচশ টাকা।

এ বিষয়ে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের হেড অব কমিউনিকেশনস সালমান খান ইয়াছিন জানান, রমজান উপলক্ষে প্রতি সপ্তাহে রাজধানীর নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য এই বাজারের ব্যবস্থা থাকছে। বিভিন্ন এলাকার দরিদ্র পরিবার বাছাই করে তালিকাবদ্ধ করে একবার করে বাজার করার সুযোগ দেওয়া হয়।

ঢাকা ছাড়াও চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ ও রংপুরে এই বাজারের আয়োজন করা হবে। তিনি আরও বলেন, আসন্ন ঈদ সামনে রেখে ৫ টাকায় ঈদের বাজার বসানোর পরিকল্পনা আছে বিদ্যানন্দের।

About admin

Check Also

ফের আদালতে নেয়া হলো শিক্ষিকার স্বামী মামুনকে…মোড় ঘুরলো ঘটনার

এবার নাটোরে শিক্ষিকা খায়রুন নাহারের মৃত্যুর ঘটনায় আটক স্বামী মামুন হোসেনকে আদালতে নেয়া হয়েছে। আজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.