আল-আকসা মসজিদে হামলা, তীব্র নিন্দা জানাল সৌদি

অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে অভিযান চালিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ। এ সময় সহিংসতায় অন্তত ১৫২ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ফিলিস্তিনের জেরুজালেম শহরে অবস্থিত মসজিদে আকসায় জুমার নামাজে আগত নিরস্ত্র মুসল্লিদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। গতকাল শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) পবিত্র আল আকসা মসজিদের গেট বন্ধ করাসহ চত্বরে সংঘর্ষের ঘটনায় ইসরায়েলের দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে নিন্দা জানায় দেশটি।

আরব নিউজের সূত্রে জানা যায়, পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে আল আকসা মসজিদ সমবেত হয় হাজারো মুসল্লি। এ সময় ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সংঘর্ষ হয়।এক বছর আগেও একই স্থানে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সংঘাত হয়েছিল।

এক বিবৃতিতে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ইসরায়েলের এ ধরনের হামলা পবিত্র আকসা মসজিদের পবিত্রতা লঙ্ঘনের শামিল এবং মুসলিম জাতির কাছে এর তাৎপর্যের ওপর নির্লজ্জ হামলার শামিল। তা ছাড়া আন্তর্জাতিক রেগুলেশন ও চুক্তির লঙ্ঘন বলে মনে করে দেশটি।

শান্তি পরিস্থিতি লঙ্ঘনের অভিযোগে ইসরায়েলকে দায়ী করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সৌদি আরব। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ফিলিস্তিনের জনগণ,

তাদের ভূমি ও পবিত্র স্থানগুলোতে শান্তি পুনঃস্থাপনে চলমান অপরাধ ও শান্তি প্রক্রিয়া লঙ্ঘনের জন্য ইসরায়েল দায়ী থাকবে। এ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিপ্রচেষ্টা পুনরুজ্জীবিত করার প্রতি গুরুত্বারোপের কথা বলা হয়।

সম্প্রতি এ ধরনের সহিংস হামলা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় জেরুজালেমকে নতুন করে সংঘাতের দিকে ঢেলে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে গত বছর রমজান মাসে মসজিদে আকসা চত্বরে ইসরায়েলি বাহিনী ও হামাসের মধ্যে তীব্র সংঘাত হয়েছিল। তখন মিসর, জর্দান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় দীর্ঘ সংলাপের পর ১১ দিন চলা এ সংঘর্ষ বন্ধ হয়েছিল।

অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে অভিযান চালিয়েছে ইসরায়েলি পুলিশ। এ সময় সহিংসতায় অন্তত ১৫২ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ফিলিস্তিনের জেরুজালেম শহরে অবস্থিত মসজিদে আকসায় জুমার নামাজে আগত নিরস্ত্র মুসল্লিদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। গতকাল শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) পবিত্র আল আকসা মসজিদের গেট বন্ধ করাসহ চত্বরে সংঘর্ষের ঘটনায় ইসরায়েলের দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে নিন্দা জানায় দেশটি।

আরব নিউজের সূত্রে জানা যায়, পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে আল আকসা মসজিদ সমবেত হয় হাজারো মুসল্লি। এ সময় ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সংঘর্ষ হয়।এক বছর আগেও একই স্থানে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সংঘাত হয়েছিল।

এক বিবৃতিতে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ইসরায়েলের এ ধরনের হামলা পবিত্র আকসা মসজিদের পবিত্রতা লঙ্ঘনের শামিল এবং মুসলিম জাতির কাছে এর তাৎপর্যের ওপর নির্লজ্জ হামলার শামিল। তা ছাড়া আন্তর্জাতিক রেগুলেশন ও চুক্তির লঙ্ঘন বলে মনে করে দেশটি।

শান্তি পরিস্থিতি লঙ্ঘনের অভিযোগে ইসরায়েলকে দায়ী করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসার আহ্বান জানায় সৌদি আরব। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ফিলিস্তিনের জনগণ,

তাদের ভূমি ও পবিত্র স্থানগুলোতে শান্তি পুনঃস্থাপনে চলমান অপরাধ ও শান্তি প্রক্রিয়া লঙ্ঘনের জন্য ইসরায়েল দায়ী থাকবে। এ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিপ্রচেষ্টা পুনরুজ্জীবিত করার প্রতি গুরুত্বারোপের কথা বলা হয়।

সম্প্রতি এ ধরনের সহিংস হামলা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় জেরুজালেমকে নতুন করে সংঘাতের দিকে ঢেলে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে গত বছর রমজান মাসে মসজিদে আকসা চত্বরে ইসরায়েলি বাহিনী ও হামাসের মধ্যে তীব্র সংঘাত হয়েছিল। তখন মিসর, জর্দান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় দীর্ঘ সংলাপের পর ১১ দিন চলা এ সংঘর্ষ বন্ধ হয়েছিল।

সূত্র : আরব নিউজ

About admin

Check Also

মাঠে অকারণে গড়াগড়ি, আবারো হাসির খোরাক নেইমার

গত ২০১৮ বিশ্বকাপ থেকে শুরু। সামান্য বাধা পেয়ে মাঠে পড়ে গড়াগড়ি খাওয়া, অযথা ডাইভ দেওয়ায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.