রক্ষা পেল না রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সও

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে রূপ নিয়েছে। সকাল সাড়ে দশটা থেকে শুরু হওয়া এই সংঘর্ষ চলেছে প্রায় তিন ঘন্টা যাবত। দুই পক্ষই ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় হামলা-আক্রমন চালিয়ে যাচ্ছে। চলমান সংঘর্ষের ঘটনায় একটি রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে এ ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে দেখা যায়, একজন আহত ২৫-৩০ বছর বয়সী রোগীকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাচ্ছিল অ্যাম্বুলেন্সটি। ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছেন, অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকা কলেজের আহত একজন শিক্ষার্থী ছিল। সেটি ভাঙচুর করেছেন ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা।

নীলক্ষেত ফুটওভার ব্রিজের নিচে পুলিশ অবস্থান নিলে অ্যাম্বুলেন্সচালক পুলিশকে উদ্দেশ করে তার গাড়ি ভেঙে ফেলার অভিযোগ দিতে থাকেন। পরবর্তীতে পুলিশ দ্রুত রোগীকে হাসতাপালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। এ সময় দেখা যায়, অ্যাম্বুলেন্সটির চতুর্দিকের সবগুলো গ্লাস ভাঙা৷ ভাঙা গাড়ি নিয়েই রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যান চালক।

এর আগে সোমবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের জেরে মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল থেকে নিউমার্কেট এলাকা অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। এসময় নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরাও রাস্তায় নেমে আসে। তারাও পাল্টা ধাওয়া দেয় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের। এসময় উভয়পক্ষর হাতেই দেশীয় অস্ত্র বহন করতে দেখা যায়।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে নিউমার্কেট এলাকায় ‘কথা-কাটাকাটির জেরে’ ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী ও দুই ব্যবসায়ী আহত হন। আহত হন বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও।

এদিকে মধ্যরাতে সংঘর্ষের পর ঢাকা কলেজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ঘোষণা দেওয়া হয়, ‘অনিবার্য কারণে ১৯ এপ্রিল, মঙ্গলবার ঢাকা কলেজের উচ্চমাধ্যমিক ও অনার্স-মাস্টার্স শ্রেণির সকল ক্লাস ও পরীক্ষাসমূহ স্থগিত করা হলো। সকল শিক্ষককে সকাল ১০টার মধ্যে কলেজে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করা হলো।’

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে রূপ নিয়েছে। সকাল সাড়ে দশটা থেকে শুরু হওয়া এই সংঘর্ষ চলেছে প্রায় তিন ঘন্টা যাবত। দুই পক্ষই ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় হামলা-আক্রমন চালিয়ে যাচ্ছে। চলমান সংঘর্ষের ঘটনায় একটি রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে এ ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে দেখা যায়, একজন আহত ২৫-৩০ বছর বয়সী রোগীকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাচ্ছিল অ্যাম্বুলেন্সটি। ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছেন, অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকা কলেজের আহত একজন শিক্ষার্থী ছিল। সেটি ভাঙচুর করেছেন ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা।

নীলক্ষেত ফুটওভার ব্রিজের নিচে পুলিশ অবস্থান নিলে অ্যাম্বুলেন্সচালক পুলিশকে উদ্দেশ করে তার গাড়ি ভেঙে ফেলার অভিযোগ দিতে থাকেন। পরবর্তীতে পুলিশ দ্রুত রোগীকে হাসতাপালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। এ সময় দেখা যায়, অ্যাম্বুলেন্সটির চতুর্দিকের সবগুলো গ্লাস ভাঙা৷ ভাঙা গাড়ি নিয়েই রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যান চালক।

এর আগে সোমবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের জেরে মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল থেকে নিউমার্কেট এলাকা অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। এসময় নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরাও রাস্তায় নেমে আসে। তারাও পাল্টা ধাওয়া দেয় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের। এসময় উভয়পক্ষর হাতেই দেশীয় অস্ত্র বহন করতে দেখা যায়।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে নিউমার্কেট এলাকায় ‘কথা-কাটাকাটির জেরে’ ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় দুই শিক্ষার্থী ও দুই ব্যবসায়ী আহত হন। আহত হন বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও।

এদিকে মধ্যরাতে সংঘর্ষের পর ঢাকা কলেজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ঘোষণা দেওয়া হয়, ‘অনিবার্য কারণে ১৯ এপ্রিল, মঙ্গলবার ঢাকা কলেজের উচ্চমাধ্যমিক ও অনার্স-মাস্টার্স শ্রেণির সকল ক্লাস ও পরীক্ষাসমূহ স্থগিত করা হলো। সকল শিক্ষককে সকাল ১০টার মধ্যে কলেজে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করা হলো।’

About admin

Check Also

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের টাকার বিষয়ে সরকার কোনো তথ্য চায়নি: সুইস রাষ্ট্রদূত

এবার বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড বলেছেন, সুইস ব্যাংকের কাছে অর্থ জমা নিয়ে সুইজারল্যান্ড …

Leave a Reply

Your email address will not be published.