টানা ৪১ দিনে জামাতে নামাজ পড়ে পুরস্কার পেল ১২ কি’শোর

জুনায়েদ, সাজ্জাদ বা শিহাব ওদের নাম। বয়স ৯ থেকে ১২-র মধ্যে। এ বয়সেই অনন্য এক পুরস্কার লাভে ধন্য হয়েছে ওরা। টানা ৪১ দিন ম’স’জিদে জামাতের সাথে নামাজ আদায় করে জিতে নিয়েছে এলাকাবাসীর মন। উপহার হিসেবে কেউ পেয়েছে সাইকেল, কেউবা ঘড়ি। আবার অনেকে পেয়েছে ধ’র্মীয় বইসহ নানা রকমের পুরস্কার।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজে’লার সাদিপুর ইউনিয়নের গুলনগর গ্রামের হাজি তোফাজ্জল হোসেন কি’শোরদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে এ আয়োজন করেন। টানা ৪১ দিন তাকবিরে উলার (প্রথম তাকবির) সঙ্গে জামাতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করলে পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

শুরুতে অনেক কি’শোর প্রতিযোগিতায় নাম লেখায়। তবে টানা ৪১ দিন তাকবিরে উলার সঙ্গে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতে আদায়ে সক্ষম হয় ১২ জন। গত রোববার তাদের হাতে অনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলো- কাজী সুমন, কাজী সিফাত, কাজী নজরুল ই’স’লা’ম, কাজী রোহান, জুনায়েদ, রায়হান, কাইয়ুম, সাজ্জাদ ও সিহাব।

গুলনগর জামে ম’স’জিদের ই’মাম মোসলেম মিয়া জানান, এ আয়োজনের ঘোষণার পর থেকে অনেক কি’শোর ম’স’জিদে নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা শুরু করে। কর্তৃপক্ষ তাদের উপস্থিতির হিসাব রাখতো। যাচাই-বাছাই ও হাজিরার ভিত্তিতে শেষ পর্যন্ত ১২ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

তিনি জানান, প্রতিযোগিতা চলাকালে তারা শুধু নামাজই পড়েনি, সাথে সাথে সঠিকভাবে নামাজ শিক্ষা ও নামাজ স’ম্প’র্কে জরুরি মাসআলা, তালিম-তরবিয়তও শিখেছে।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা তাদের অনুভূতি জানাতে গিয়ে বলে, পুরস্কার পেয়ে অ’ত্যন্ত খুশি আম’রা। স্থানীয়রা এমন উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, এ কার্যক্রম শি’শুদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে। আম’রা বিষয়টি কিছুদিন ধরে লক্ষ্য করছি, ছে’লেরা নামাজে নিয়মিত আসছে। তাদের পদচারণায় ম’স’জিদ সবসময় মুখরিত থাকত।

জুনায়েদ, সাজ্জাদ বা শিহাব ওদের নাম। বয়স ৯ থেকে ১২-র মধ্যে। এ বয়সেই অনন্য এক পুরস্কার লাভে ধন্য হয়েছে ওরা। টানা ৪১ দিন ম’স’জিদে জামাতের সাথে নামাজ আদায় করে জিতে নিয়েছে এলাকাবাসীর মন। উপহার হিসেবে কেউ পেয়েছে সাইকেল, কেউবা ঘড়ি। আবার অনেকে পেয়েছে ধ’র্মীয় বইসহ নানা রকমের পুরস্কার।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজে’লার সাদিপুর ইউনিয়নের গুলনগর গ্রামের হাজি তোফাজ্জল হোসেন কি’শোরদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে এ আয়োজন করেন। টানা ৪১ দিন তাকবিরে উলার (প্রথম তাকবির) সঙ্গে জামাতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করলে পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

শুরুতে অনেক কি’শোর প্রতিযোগিতায় নাম লেখায়। তবে টানা ৪১ দিন তাকবিরে উলার সঙ্গে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতে আদায়ে সক্ষম হয় ১২ জন। গত রোববার তাদের হাতে অনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলো- কাজী সুমন, কাজী সিফাত, কাজী নজরুল ই’স’লা’ম, কাজী রোহান, জুনায়েদ, রায়হান, কাইয়ুম, সাজ্জাদ ও সিহাব।

গুলনগর জামে ম’স’জিদের ই’মাম মোসলেম মিয়া জানান, এ আয়োজনের ঘোষণার পর থেকে অনেক কি’শোর ম’স’জিদে নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করা শুরু করে। কর্তৃপক্ষ তাদের উপস্থিতির হিসাব রাখতো। যাচাই-বাছাই ও হাজিরার ভিত্তিতে শেষ পর্যন্ত ১২ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

তিনি জানান, প্রতিযোগিতা চলাকালে তারা শুধু নামাজই পড়েনি, সাথে সাথে সঠিকভাবে নামাজ শিক্ষা ও নামাজ স’ম্প’র্কে জরুরি মাসআলা, তালিম-তরবিয়তও শিখেছে।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা তাদের অনুভূতি জানাতে গিয়ে বলে, পুরস্কার পেয়ে অ’ত্যন্ত খুশি আম’রা। স্থানীয়রা এমন উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, এ কার্যক্রম শি’শুদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে। আম’রা বিষয়টি কিছুদিন ধরে লক্ষ্য করছি, ছে’লেরা নামাজে নিয়মিত আসছে। তাদের পদচারণায় ম’স’জিদ সবসময় মুখরিত থাকত।

About admin

Check Also

ধর্মের কারণে অভিনয় ছাড়লেন ঈশিকা

বাংলাদেশের জনপ্রিয় মুখ ঈশিকা খান । অভিনয়ের পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের মডেল ও উপস্থাপক হিসেবেও অনেক প্রশংসিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.