ভাড়া‍য় পাওয়া যাবে বউ, আবার ছেড়েও দিতে পারবেন ইচ্ছে মত

মধ্যপ্রদেশের শিবপুরি জে’লার এই গ্রামের অবস্থান। সেখানে দীর্ঘদিন ধরে এমন নিয়ম চলছে। অবশ্য এই কাজে তাদের কোনো আ’পত্তি নেই। বি’ষয়টি এখন তাদের কাছে বৈধ।

এ প্রথাকে স্থানীয় ভাষায় ‘ধাদিচা’ বলা হয়।বউ ভাড়া নেয়ার বি’ষয়টি এখন গ্রাম্য আইনে বৈধতা দেয়া হয়। সরকারি স্ট্যাম্পে চুক্তিপত্র করা হয়। উভ’য় পক্ষ সেখানে স্বাক্ষর করে।

এরপর চুক্তি কার্যকর হয়। বউ নিয়ে আম’রা অনেক সময় অনেক শিরোনাম পড়ে থাকি। এবারের শিরোনামটাও এর ব্যতিক্রম নয়। অ’বাক হলেও সত্যি বউ ভাড়া দেয়া হয় ভারতের একটি প্রদেশে।

বিয়ে করা তাদের কাছে বেশ ঝামেলা! কোনো নারীকে বিয়ে করে স্থায়ীভাবে দায়ব’দ্ধ ‘হতে চায় না। তাই বউ ভাড়া করে দাম্পত্য জীবন কা’টান গ্রামের পুরুষরা!

এমন বিস্ময়কর গ্রাম রয়েছে ভারতে। আরো পরুন ঈদুল ফিতরের ছুটিতে দূরপাল্লার বাস চলাচল নিয়ে এইমাত্র যে চূড়ান্ত সি’দ্ধান্ত জানালো সরকার আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরের

ছুটিতে আন্তঃজে’লা পরিবহন বা দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। সোমবার (৪ মে) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ‘করো’নাভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে শর্তসা’পেক্ষে সাধারণ ছুটি/চলাচলে নিষে’ধাজ্ঞা বর্ধিতকরণ’

শীর্ষক এক আদেশে এ কথা জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, ‘সব মন্ত্রণালয় বিভাগ তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন অফিসসমূহ প্রয়োজনানুসারে খোলা রাখবে, সেই স’ঙ্গে তাদের অধিক্ষেত্রের কার্যাব’লি পরিচালনার জন্য

সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবে।’ আদেশে আরও বলা হয়, ঈদুল ফিতরের সরকারি ছুটিতে কেউ কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না, ওই সময় আন্তঃজে’লা পরিবহন বন্ধ থাকবে।

প্রতি ঈদে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন নগর-মহানগর থেকে আন্তঃজে’লা পরিবহনযোগে অন্যত্র যাতায়াত করেন লোকজন। এবার করো’নাভাইরাস পরিস্থিতি সংক্রমণের মধ্যে এ ধরনের পরিবহন চললে পরিস্থিতির অবনতির শঙ্কা তৈরি ‘হতো। এখন আন্তঃজে’লা পরিবহন বা দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধের

এ ঘোষণাকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন সংশ্লিষ্ট কর্মক’র্তারা। এদিকে করো’নাভাইরাস সংক্রমণ রোধে চলমান সাধারণ ছুটি আরও ১১ দিন বাড়ানো হয়েছে।

জরুরি সেবা দেওয়াসহ দফতরগু’লোকে আওতার বাইরে রেখে বিভিন্ন নির্দেশনা মানা সা’পেক্ষে আগামী ৬ থেকে ১৬ মে পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। করো’নার কারণে সরকার প্রথমে ২৬ মা’র্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করে। পরে আরও চার দফায় ছুটি বাড়িয়ে ৫ মে পর্যন্ত করা হয়।

শীর্ষক এক আদেশে এ কথা জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, ‘সব মন্ত্রণালয় বিভাগ তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন অফিসসমূহ প্রয়োজনানুসারে খোলা রাখবে, সেই স’ঙ্গে তাদের অধিক্ষেত্রের কার্যাব’লি পরিচালনার জন্য

সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবে।’ আদেশে আরও বলা হয়, ঈদুল ফিতরের সরকারি ছুটিতে কেউ কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন না, ওই সময় আন্তঃজে’লা পরিবহন বন্ধ থাকবে।

প্রতি ঈদে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন নগর-মহানগর থেকে আন্তঃজে’লা পরিবহনযোগে অন্যত্র যাতায়াত করেন লোকজন। এবার করো’নাভাইরাস পরিস্থিতি সংক্রমণের মধ্যে এ ধরনের পরিবহন চললে পরিস্থিতির অবনতির শঙ্কা তৈরি ‘হতো। এখন আন্তঃজে’লা পরিবহন বা দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধের

এ ঘোষণাকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন সংশ্লিষ্ট কর্মক’র্তারা। এদিকে করো’নাভাইরাস সংক্রমণ রোধে চলমান সাধারণ ছুটি আরও ১১ দিন বাড়ানো হয়েছে।

জরুরি সেবা দেওয়াসহ দফতরগু’লোকে আওতার বাইরে রেখে বিভিন্ন নির্দেশনা মানা সা’পেক্ষে আগামী ৬ থেকে ১৬ মে পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। করো’নার কারণে সরকার প্রথমে ২৬ মা’র্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করে। পরে আরও চার দফায় ছুটি বাড়িয়ে ৫ মে পর্যন্ত করা হয়।

About admin

Check Also

জীবনে সুখী হতে চাইলে বিয়ে করুন এসব মেয়েকে, জেনেনিন কেন !

প্রত্যেক নারীর মনোভাব বদলে গিয়েছে। আগের মতো আর নেই, যে খাবার সামনে পেলো আর ওটাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.