বিমানবালার সহায়তায় মাঝআকাশেই সন্তান প্রসব করলেন নারী.,

মানুষ মানুষের জন্য, অসময়ে অপরিচিত মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াই তো মনুষ্যত্ব। মাঝআকাশে আচমকাই প্রসববেদনা শুরু হয় এক অন্তঃসত্ত্বা রমণীর।

মহিলার অবস্থা দেখে আর কালবিলম্ব করেননি বিমানসেবিকা, এগিয়ে আসেন সহায়তা করতে। শেষ পর্যন্ত বিমানসেবিকার সহায়তায় বিমানের মধ্যেই সন্তানপ্রসবে বাধ্য হন ওই মহিলা।

কোনও রকম অসুবিধা ছাড়াই বিমানের মধ্যেই ভূমিষ্ঠ হয় ফুটফুটে কন্যাসন্তান। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকায়।বিমান সংস্থা ‘ফ্রন্টিয়ার এয়ারলাইন্স’ নিজেরাই ফেসবুকে জানিয়েছে গোটা বিষয়টি। ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে অরল্যান্ডো যাচ্ছিল বিমানটি।

মাঝআকাশে এক যাত্রীর প্রসববেদনা শুরু হতেই সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন বিমানসেবিকা ডায়ানা জিরাল্ডো। বিমানচালক ক্রিস নাই ডায়ানার সাহসিকতার প্রশংসা করে বলেছেন, ‘‘ডায়ানা ঠান্ডা মাথায় যা করেছেন তা সত্যিই ব্যতিক্রমী।’’

নেটমাধ্যমে ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে বিমানসংস্থার ওই পোস্ট। গোটা ঘটনার কথা জানতে পেরে বিমানচালক ও ওই বিমানসেবিকাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অসংখ্য নেটাগরিকও।মায়ের পরিচয় না জানা গেলেও, বিমানসংস্থা সূত্রে খবর, আকাশে জন্ম বলে সদ্যোজাত কন্যার মাঝের নাম ‘স্কাই’ রাখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তার মা।

মানুষ মানুষের জন্য, অসময়ে অপরিচিত মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াই তো মনুষ্যত্ব। মাঝআকাশে আচমকাই প্রসববেদনা শুরু হয় এক অন্তঃসত্ত্বা রমণীর।

মহিলার অবস্থা দেখে আর কালবিলম্ব করেননি বিমানসেবিকা, এগিয়ে আসেন সহায়তা করতে। শেষ পর্যন্ত বিমানসেবিকার সহায়তায় বিমানের মধ্যেই সন্তানপ্রসবে বাধ্য হন ওই মহিলা।

কোনও রকম অসুবিধা ছাড়াই বিমানের মধ্যেই ভূমিষ্ঠ হয় ফুটফুটে কন্যাসন্তান। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকায়।বিমান সংস্থা ‘ফ্রন্টিয়ার এয়ারলাইন্স’ নিজেরাই ফেসবুকে জানিয়েছে গোটা বিষয়টি। ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে অরল্যান্ডো যাচ্ছিল বিমানটি।

মাঝআকাশে এক যাত্রীর প্রসববেদনা শুরু হতেই সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন বিমানসেবিকা ডায়ানা জিরাল্ডো। বিমানচালক ক্রিস নাই ডায়ানার সাহসিকতার প্রশংসা করে বলেছেন, ‘‘ডায়ানা ঠান্ডা মাথায় যা করেছেন তা সত্যিই ব্যতিক্রমী।’’

নেটমাধ্যমে ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে বিমানসংস্থার ওই পোস্ট। গোটা ঘটনার কথা জানতে পেরে বিমানচালক ও ওই বিমানসেবিকাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অসংখ্য নেটাগরিকও।মায়ের পরিচয় না জানা গেলেও, বিমানসংস্থা সূত্রে খবর, আকাশে জন্ম বলে সদ্যোজাত কন্যার মাঝের নাম ‘স্কাই’ রাখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তার মা।

মানুষ মানুষের জন্য, অসময়ে অপরিচিত মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়াই তো মনুষ্যত্ব। মাঝআকাশে আচমকাই প্রসববেদনা শুরু হয় এক অন্তঃসত্ত্বা রমণীর।

মহিলার অবস্থা দেখে আর কালবিলম্ব করেননি বিমানসেবিকা, এগিয়ে আসেন সহায়তা করতে। শেষ পর্যন্ত বিমানসেবিকার সহায়তায় বিমানের মধ্যেই সন্তানপ্রসবে বাধ্য হন ওই মহিলা।

কোনও রকম অসুবিধা ছাড়াই বিমানের মধ্যেই ভূমিষ্ঠ হয় ফুটফুটে কন্যাসন্তান। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকায়।বিমান সংস্থা ‘ফ্রন্টিয়ার এয়ারলাইন্স’ নিজেরাই ফেসবুকে জানিয়েছে গোটা বিষয়টি। ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে অরল্যান্ডো যাচ্ছিল বিমানটি।

মাঝআকাশে এক যাত্রীর প্রসববেদনা শুরু হতেই সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন বিমানসেবিকা ডায়ানা জিরাল্ডো। বিমানচালক ক্রিস নাই ডায়ানার সাহসিকতার প্রশংসা করে বলেছেন, ‘‘ডায়ানা ঠান্ডা মাথায় যা করেছেন তা সত্যিই ব্যতিক্রমী।’’

নেটমাধ্যমে ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে বিমানসংস্থার ওই পোস্ট। গোটা ঘটনার কথা জানতে পেরে বিমানচালক ও ওই বিমানসেবিকাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অসংখ্য নেটাগরিকও।মায়ের পরিচয় না জানা গেলেও, বিমানসংস্থা সূত্রে খবর, আকাশে জন্ম বলে সদ্যোজাত কন্যার মাঝের নাম ‘স্কাই’ রাখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তার মা।

About admin

Check Also

বুকের ঘাম বিক্রি করে কোটিপতি অভিনেত্রী!(ভিডিও)

সূর্যের প্রখর রোদে বসে রয়েছেন লাস্যময়ী অভিনেত্রী। তাঁর পুরো শরীর ঘামে ভিজে যাচ্ছে। কিন্তু, এটাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.