ক্ষমা চেয়ে পদ্মা সেতু দিয়ে যেতে পারেন বিএনপি নেতারা: তথ্যমন্ত্রী

গত ৪১ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বদলে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, গত ১৩ বছরে প্রতিটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে। এই নজিরবিহীন উন্নতি বরদাস্ত না হওয়ায় আবারও ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে, বিএনপি-জামায়াত গর্ত থেকে উঁকি মেরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর ৪২তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সব প্রতিকূলতার মধ্যেও সব সময় দেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করে একটি মর্যাদাপূর্ণ রাষ্ট্র হিসেবে নতুন উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

খাদ্য উদ্বৃত্ত দেশ। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত, তাদের মিত্র ও কিছু বুদ্ধিজীবী এই উন্নয়ন অগ্রগতি পছন্দ করেন না। এজন্য সারা বিশ্ব যখন প্রশংসা করে তখনও তারা প্রশংসা করতে পারে না, কিন্তু তাদের কথায় মনে হয় দেশ দশ হাত দিয়েছে, যা বাস্তবতার বিপরীত। ‘

তিনি বলেন, ‘বেগম জিয়া, মির্জা ফখরুল সাহেবের ধারণা আওয়ামী লীগ সরকার পদ্মা সেতু করতে পারবে না- এমন মন্তব্য এখনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরপাক খাচ্ছে’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হয়েছে।

উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। আমরা এটির জন্য অপেক্ষা করছি। আমি ভাবছি ফখরুল সাহেবরা পদ্মা সেতু পার হবে নাকি নিচে আওয়ামী লীগের নৌকা। লজ্জা থাকলে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে পদ্মা সেতু পার হতে পারে। আমরা চাই আপনারা পদ্মা সেতু ব্যবহার করুন।

গত ৪১ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বদলে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, গত ১৩ বছরে প্রতিটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে। এই নজিরবিহীন উন্নতি বরদাস্ত না হওয়ায় আবারও ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে, বিএনপি-জামায়াত গর্ত থেকে উঁকি মেরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর ৪২তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সব প্রতিকূলতার মধ্যেও সব সময় দেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করে একটি মর্যাদাপূর্ণ রাষ্ট্র হিসেবে নতুন উচ্চতায় প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

খাদ্য উদ্বৃত্ত দেশ। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত, তাদের মিত্র ও কিছু বুদ্ধিজীবী এই উন্নয়ন অগ্রগতি পছন্দ করেন না। এজন্য সারা বিশ্ব যখন প্রশংসা করে তখনও তারা প্রশংসা করতে পারে না, কিন্তু তাদের কথায় মনে হয় দেশ দশ হাত দিয়েছে, যা বাস্তবতার বিপরীত। ‘

তিনি বলেন, ‘বেগম জিয়া, মির্জা ফখরুল সাহেবের ধারণা আওয়ামী লীগ সরকার পদ্মা সেতু করতে পারবে না- এমন মন্তব্য এখনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরপাক খাচ্ছে’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হয়েছে।

উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। আমরা এটির জন্য অপেক্ষা করছি। আমি ভাবছি ফখরুল সাহেবরা পদ্মা সেতু পার হবে নাকি নিচে আওয়ামী লীগের নৌকা। লজ্জা থাকলে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে পদ্মা সেতু পার হতে পারে। আমরা চাই আপনারা পদ্মা সেতু ব্যবহার করুন।

About admin

Check Also

রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপভোটে তলোয়ার নিয়ে দাড়ালে রাইফেল দিয়ে প্রতিরোধ করতে বললেন সিইসি

ভোটের সময় কেউ যদি সহিংসতা সৃষ্টি করতে তলোয়ার নিয়ে দাঁড়ায় তাহলে প্রতিপক্ষকে রাইফেল নিয়ে তা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.