কনের ইচ্ছা পূরণে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে, বর-কনেকে দেখতে উৎসুক লোকজনের ভিড়

পাবনার সুজানগরে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করে কনের ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রকৌশলী মো. জাহিদুর রহমান (মিলু)। শুক্রবার উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রাম থেকে গিয়ে একই উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে তিনি বিয়ে করেন।

বর প্রকৌশলী মিলু উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রামের রওশন আলীর ছেলে। তিনি সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত আছেন।

আর কনে জেরিন খান সুজানগর এনএ কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং ভবানীপুর এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী উজ্জ্বল খানের মেয়ে। বরের বড়ভাবি মোছা. রথি খাতুন জানান, কনের ইচ্ছা পূরণ করতেই হেলিকপ্টারে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে হেলিক’প্টারে চড়ে কনেকে নিয়ে রওনা দেন বর। আর বরযাত্রীরা যাতায়াত করেন মাইক্রোবাসে।বর প্রকৌশলী মিলু হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনের বিষয়ে কোনো কথা না বললেও তাদের বিয়েটা পারিবারিকভাবেই হ’চ্ছে বলে জানান।

স্থানীয় লোকজন জানান, হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের ঘটনা তাদের এলাকাতে এটিই প্রথম। হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনে উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে উৎসুক লোকজন হেলিকপ্টার ও বর-কনেকে দেখতে ভি’ড় জমান।গ্রামবাসীর মধ্যে এ সময় আনন্দ-উ’চ্ছ্বাস দেখা যায়।

পাবনার সুজানগরে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করে কনের ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রকৌশলী মো. জাহিদুর রহমান (মিলু)। শুক্রবার উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রাম থেকে গিয়ে একই উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে তিনি বিয়ে করেন।

বর প্রকৌশলী মিলু উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রামের রওশন আলীর ছেলে। তিনি সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত আছেন।

আর কনে জেরিন খান সুজানগর এনএ কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং ভবানীপুর এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী উজ্জ্বল খানের মেয়ে। বরের বড়ভাবি মোছা. রথি খাতুন জানান, কনের ইচ্ছা পূরণ করতেই হেলিকপ্টারে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে হেলিক’প্টারে চড়ে কনেকে নিয়ে রওনা দেন বর। আর বরযাত্রীরা যাতায়াত করেন মাইক্রোবাসে।বর প্রকৌশলী মিলু হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনের বিষয়ে কোনো কথা না বললেও তাদের বিয়েটা পারিবারিকভাবেই হ’চ্ছে বলে জানান।

স্থানীয় লোকজন জানান, হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের ঘটনা তাদের এলাকাতে এটিই প্রথম। হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনে উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে উৎসুক লোকজন হেলিকপ্টার ও বর-কনেকে দেখতে ভি’ড় জমান।গ্রামবাসীর মধ্যে এ সময় আনন্দ-উ’চ্ছ্বাস দেখা যায়।

পাবনার সুজানগরে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করে কনের ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রকৌশলী মো. জাহিদুর রহমান (মিলু)। শুক্রবার উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রাম থেকে গিয়ে একই উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে তিনি বিয়ে করেন।

বর প্রকৌশলী মিলু উপজেলার আহম্মদপুর উত্তরপাড়া গ্রামের রওশন আলীর ছেলে। তিনি সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত আছেন।

আর কনে জেরিন খান সুজানগর এনএ কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী এবং ভবানীপুর এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী উজ্জ্বল খানের মেয়ে। বরের বড়ভাবি মোছা. রথি খাতুন জানান, কনের ইচ্ছা পূরণ করতেই হেলিকপ্টারে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে হেলিক’প্টারে চড়ে কনেকে নিয়ে রওনা দেন বর। আর বরযাত্রীরা যাতায়াত করেন মাইক্রোবাসে।বর প্রকৌশলী মিলু হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনের বিষয়ে কোনো কথা না বললেও তাদের বিয়েটা পারিবারিকভাবেই হ’চ্ছে বলে জানান।

স্থানীয় লোকজন জানান, হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের ঘটনা তাদের এলাকাতে এটিই প্রথম। হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের আয়োজনে উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে উৎসুক লোকজন হেলিকপ্টার ও বর-কনেকে দেখতে ভি’ড় জমান।গ্রামবাসীর মধ্যে এ সময় আনন্দ-উ’চ্ছ্বাস দেখা যায়।

About admin

Check Also

অ’নেক হা’ড্ডাহা’ড্ডি ল’ড়াই করে বি’লের ম’ধ্যে জাল দিয়ে ফা’দ পেতে বি’শাল ব’ড় ব’ড় মা’ছ শি’কার, যা নেট দু’নিয়ায় ব্যা’পক সাড়া জা’গিয়েছে তু’মুল ভা’ইরাল ভিডিও

অনেক হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে বিলের মধ্যে জাল দিয়ে ফাদ পেতে বিশাল বড় বড় মাছ শিকার, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.