মঙ্গলবার থেকে ১৮ রুটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট

মঙ্গলবার থেকে খুলনার সাথে ১৮টি রুটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হচ্ছে। সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ নসিমন, করিমন, আলমসাধু, ভটভটি, মাহিন্দ্রা ও শ্যালো ইঞ্জিন যানবাহন বন্ধের দাবিতে এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

এর আগে মহাসড়কে অবৈধ যানবহন চলাচল বন্ধে ৩০ মে পর্যন্ত প্রশাসনকে সময় দেয় এ দুটি সংগঠন। দাবি আদায় না হলে মঙ্গলবার থেকে ধর্মঘটের হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল তারা। রবিবার (২৯ মে) ধর্মঘটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খুলনা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা।

বাস-মিনিবাস কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা বলেন, ‘তারা দীর্ঘ দিন ধরে মহাসড়কে ইজিবাইক, মাহিন্দ্রা, নছিমন, করিমনসহ অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবি জানিয়ে আসছেন।

যার পরিপ্রেক্ষিতে সাম্প্রতিক সময়ে এসব যানবাহন চলাচল কিছুটা কম ছিল। কিন্তু আবারও বেপরোয়া চলাচল শুরু হয়েছে। এসব অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে তারা অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট আহবান করেছেন। ইতোমধ্যে এসব রূটে চলাচলরত পরিবহন মালিকদের চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

তিনি জানান, এসব যান চলাচল বন্ধে এ অঞ্চলের পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা অনেক দিন ধরে সাংগঠনিকভাবে প্রতিবাদ ও আন্দোলন করে যাচ্ছেন। কিন্তু প্রশাসনের অস্পষ্ট অবস্থানের কারণে আবারও অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, খুলনা থেকে সাতক্ষীরা, মাওয়া, বরিশাল, পিরোজপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, বাগেরহাট, আন্তঃজেলা খুলনা-পাইকগাছা, খুলনা-দাকোপ, খুলনা-কয়রা, খুলনা-ডুমুরিয়াসহ ১৮টি রুটে প্রায় ১ হাজার বাস চলাচল করে। কিন্তু সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ যানবাহনের কারণে একদিকে যেমন সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে, অন্যদিকে এ অঞ্চলের পরিবহন মালিকরাও ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন।

মঙ্গলবার থেকে খুলনার সাথে ১৮টি রুটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হচ্ছে। সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ নসিমন, করিমন, আলমসাধু, ভটভটি, মাহিন্দ্রা ও শ্যালো ইঞ্জিন যানবাহন বন্ধের দাবিতে এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

এর আগে মহাসড়কে অবৈধ যানবহন চলাচল বন্ধে ৩০ মে পর্যন্ত প্রশাসনকে সময় দেয় এ দুটি সংগঠন। দাবি আদায় না হলে মঙ্গলবার থেকে ধর্মঘটের হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল তারা। রবিবার (২৯ মে) ধর্মঘটের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খুলনা জেলা বাস-মিনিবাস কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা।

বাস-মিনিবাস কোচ মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সোনা বলেন, ‘তারা দীর্ঘ দিন ধরে মহাসড়কে ইজিবাইক, মাহিন্দ্রা, নছিমন, করিমনসহ অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবি জানিয়ে আসছেন।

যার পরিপ্রেক্ষিতে সাম্প্রতিক সময়ে এসব যানবাহন চলাচল কিছুটা কম ছিল। কিন্তু আবারও বেপরোয়া চলাচল শুরু হয়েছে। এসব অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে তারা অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট আহবান করেছেন। ইতোমধ্যে এসব রূটে চলাচলরত পরিবহন মালিকদের চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

তিনি জানান, এসব যান চলাচল বন্ধে এ অঞ্চলের পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা অনেক দিন ধরে সাংগঠনিকভাবে প্রতিবাদ ও আন্দোলন করে যাচ্ছেন। কিন্তু প্রশাসনের অস্পষ্ট অবস্থানের কারণে আবারও অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, খুলনা থেকে সাতক্ষীরা, মাওয়া, বরিশাল, পিরোজপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, বাগেরহাট, আন্তঃজেলা খুলনা-পাইকগাছা, খুলনা-দাকোপ, খুলনা-কয়রা, খুলনা-ডুমুরিয়াসহ ১৮টি রুটে প্রায় ১ হাজার বাস চলাচল করে। কিন্তু সড়ক-মহাসড়কে অবৈধ যানবাহনের কারণে একদিকে যেমন সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে, অন্যদিকে এ অঞ্চলের পরিবহন মালিকরাও ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন।

About admin

Check Also

লুঙ্গি ধরে টান দেয়ায় শ্যালিকাকে মেরে ঝুলিয়ে রাখে নতুন দুলাভাই

এবার কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর রাখানায় খুশি হত্যা ঘটনায় নতুন বর (জেঠাতো বোনের স্বামী) আব্দুল গনিকে গ্রেপ্তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.