দুই-চারজন অমানুষ আমাকে নিয়ে কি ভাবলো, তাতে কিছুই আসে যায় না: সানাই

বছর খানেক আগেই মিডিয়াকে বিদায় জানিয়ে আড়ালে চলে যান আলোচিত-সমালোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব। এরপর ইসলামিক জীবনযাপন বেছে নেন তিনি। সম্প্রতি অনেকটাই গোপনে বিয়ে করেছেন সানাই। বিয়ের পর নিজের সাংসারিক জীবনের জন্য দোয়াও চেয়েছেন তিনি। সম্প্রতি নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন সানাই।

সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ পরম করুণাময়। আল্লাহ ক্ষমাশীল। আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন। কিন্ত এই সমাজের কিছু মানুষ কি এটা বোঝে? বুঝলেও কি মানে? যেখানে মহান আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন সেখানে সমাজের এরকম ২, ৪, ১০ জন অমানুষ আমাকে নিয়ে কি ভাবলো,

কি করলো, কাঁদলো না হাসলো তাতে আমার কিছুই যায় আসে না! জাস্ট কিচ্ছু যায় আসে না! কারণ এরকম বহু মানুষ আমাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ইসলামের পথে আসার জন্য। আমি তাদের গুণগ্রাহী।’ এই মডেল আরও লেখেন, ‘আমি ইসলামের পথে অটুট থাকবো ইনশাআল্লাহ। দোয়া রাখবেন আমার জন্য যেনো দ্রত ওমরাহ করতে পারি।’

উল্লেখ্য, গত ২৭ মে পারিবারিক আয়োজনে সানাইয়ের বিয়ে সম্পন্ন হয়। তার বরের নাম আবু সালেহ মুসা। সানাইয়ের পৈতৃক নিবাস নীলফামারীতে। মুসার বাড়িও একই জেলায়। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত।

বছর খানেক আগেই মিডিয়াকে বিদায় জানিয়ে আড়ালে চলে যান আলোচিত-সমালোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব। এরপর ইসলামিক জীবনযাপন বেছে নেন তিনি। সম্প্রতি অনেকটাই গোপনে বিয়ে করেছেন সানাই। বিয়ের পর নিজের সাংসারিক জীবনের জন্য দোয়াও চেয়েছেন তিনি। সম্প্রতি নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন সানাই।

সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ পরম করুণাময়। আল্লাহ ক্ষমাশীল। আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন। কিন্ত এই সমাজের কিছু মানুষ কি এটা বোঝে? বুঝলেও কি মানে? যেখানে মহান আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন সেখানে সমাজের এরকম ২, ৪, ১০ জন অমানুষ আমাকে নিয়ে কি ভাবলো,

কি করলো, কাঁদলো না হাসলো তাতে আমার কিছুই যায় আসে না! জাস্ট কিচ্ছু যায় আসে না! কারণ এরকম বহু মানুষ আমাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ইসলামের পথে আসার জন্য। আমি তাদের গুণগ্রাহী।’ এই মডেল আরও লেখেন, ‘আমি ইসলামের পথে অটুট থাকবো ইনশাআল্লাহ। দোয়া রাখবেন আমার জন্য যেনো দ্রত ওমরাহ করতে পারি।’

উল্লেখ্য, গত ২৭ মে পারিবারিক আয়োজনে সানাইয়ের বিয়ে সম্পন্ন হয়। তার বরের নাম আবু সালেহ মুসা। সানাইয়ের পৈতৃক নিবাস নীলফামারীতে। মুসার বাড়িও একই জেলায়। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত।

বছর খানেক আগেই মিডিয়াকে বিদায় জানিয়ে আড়ালে চলে যান আলোচিত-সমালোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সানাই মাহবুব। এরপর ইসলামিক জীবনযাপন বেছে নেন তিনি। সম্প্রতি অনেকটাই গোপনে বিয়ে করেছেন সানাই। বিয়ের পর নিজের সাংসারিক জীবনের জন্য দোয়াও চেয়েছেন তিনি। সম্প্রতি নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন সানাই।

সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ পরম করুণাময়। আল্লাহ ক্ষমাশীল। আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন। কিন্ত এই সমাজের কিছু মানুষ কি এটা বোঝে? বুঝলেও কি মানে? যেখানে মহান আল্লাহ ক্ষমা করতে পছন্দ করেন সেখানে সমাজের এরকম ২, ৪, ১০ জন অমানুষ আমাকে নিয়ে কি ভাবলো,

কি করলো, কাঁদলো না হাসলো তাতে আমার কিছুই যায় আসে না! জাস্ট কিচ্ছু যায় আসে না! কারণ এরকম বহু মানুষ আমাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ইসলামের পথে আসার জন্য। আমি তাদের গুণগ্রাহী।’ এই মডেল আরও লেখেন, ‘আমি ইসলামের পথে অটুট থাকবো ইনশাআল্লাহ। দোয়া রাখবেন আমার জন্য যেনো দ্রত ওমরাহ করতে পারি।’

উল্লেখ্য, গত ২৭ মে পারিবারিক আয়োজনে সানাইয়ের বিয়ে সম্পন্ন হয়। তার বরের নাম আবু সালেহ মুসা। সানাইয়ের পৈতৃক নিবাস নীলফামারীতে। মুসার বাড়িও একই জেলায়। তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত।

About admin

Check Also

প্রায় ৩৩ বছর ধরে নিজের বাড়ি মনে করে স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে সমগ্র রায়গঞ্জ শহরকে পরিচ্ছন্ন করেন এই বৃদ্ধ!

আমাদের আশেপাশের পরিবেশের চোখ রাখলে আপনারা এমন অনেক ব্যক্তি দেখতে পারবেন যারা ক্রমাগত পরিবেশকে নানান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.