‘সুইসাইড নোট’ লিখে গলায় ফাঁস দিলেন প্রধান শিক্ষক

এবার চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় চিরকুট লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় চ্যাটার্জি (৪৮)। আজ বুধবার ২৯ জুন দুপুর দেড়টায় চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের খোয়াজনগর নূর মোহাম্মদের ভাড়াঘর থেকে ওই শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি পটিয়া উপজেলার ছনপাড়া ইউনিয়নের মটপাড়া এলাকার মৃত শাণি প্রিয় চ্যাটার্জির পুত্র বলে জানা গেছে।

আত্মহত্যার আগে তিনি তার ডায়েরিতে আত্মহত্যার কারণ লিখে গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। জানা যায়, উপজেলার চরলক্ষ্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় চ্যাটার্জি দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকার ভাড়া বাসায় থাকতেন। ২০২১ সালে তার বাবা-মা মারা যান। এর আগে ২০১৫ সালে স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্স হওয়ায় তিনি নিঃসঙ্গ জীবনযাপনও করতেন।

এদিকে মৃত শিক্ষকের বাসার গৃহকর্মী বিবি বানু বলেন, ‘স্যার আজ স্কুলে যাননি। সকাল ৭টায় এসে নাশতা বানিয়ে বের হয়ে গিয়েছিলাম। পরে বেলা ১১টায় দুপুরের খাবার তৈরি করে দিতে আসলে দরজা বন্ধ পাই। অনেকক্ষণ দরজা ধাক্কা দেওয়ার পরেও দরজা না খুললে আমি প্রতিবেশীদের ডাক দিই।’

এ বিষয়ে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, ‘স্থানীয়দের খবর পেয়ে দুপুরে খোয়াজনগর এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে এক শিক্ষকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক সুরতহাল সম্পন্ন হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওই শিক্ষকের কক্ষে একটি ডায়েরিতে সুইসাইড নোটও পাওয়া গেছে। সেখানে বিভিন্ন দেনাসহ, মানসিক টানাপোড়ন ও নিঃসঙ্গতার কথা উল্লেখ রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

এবার চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় চিরকুট লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় চ্যাটার্জি (৪৮)। আজ বুধবার ২৯ জুন দুপুর দেড়টায় চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের খোয়াজনগর নূর মোহাম্মদের ভাড়াঘর থেকে ওই শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি পটিয়া উপজেলার ছনপাড়া ইউনিয়নের মটপাড়া এলাকার মৃত শাণি প্রিয় চ্যাটার্জির পুত্র বলে জানা গেছে।

আত্মহত্যার আগে তিনি তার ডায়েরিতে আত্মহত্যার কারণ লিখে গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। জানা যায়, উপজেলার চরলক্ষ্যা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় চ্যাটার্জি দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকার ভাড়া বাসায় থাকতেন। ২০২১ সালে তার বাবা-মা মারা যান। এর আগে ২০১৫ সালে স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্স হওয়ায় তিনি নিঃসঙ্গ জীবনযাপনও করতেন।

এদিকে মৃত শিক্ষকের বাসার গৃহকর্মী বিবি বানু বলেন, ‘স্যার আজ স্কুলে যাননি। সকাল ৭টায় এসে নাশতা বানিয়ে বের হয়ে গিয়েছিলাম। পরে বেলা ১১টায় দুপুরের খাবার তৈরি করে দিতে আসলে দরজা বন্ধ পাই। অনেকক্ষণ দরজা ধাক্কা দেওয়ার পরেও দরজা না খুললে আমি প্রতিবেশীদের ডাক দিই।’

এ বিষয়ে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, ‘স্থানীয়দের খবর পেয়ে দুপুরে খোয়াজনগর এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে এক শিক্ষকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক সুরতহাল সম্পন্ন হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওই শিক্ষকের কক্ষে একটি ডায়েরিতে সুইসাইড নোটও পাওয়া গেছে। সেখানে বিভিন্ন দেনাসহ, মানসিক টানাপোড়ন ও নিঃসঙ্গতার কথা উল্লেখ রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

About admin

Check Also

স্যার আমি আস্তে করি, চেষ্টা করি যেন বেশি ব্যথা না পায়

ক্লাস রুটিন আর পরীক্ষার রুটিনের বাইরে ভিন্ন রকম এক রুটিন চালু করেছে রাঙ্গুনিয়ার এক কওমি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.