চিরতরে চলে গেলো ইসলামী সঙ্গীতের উজ্জ্বল নক্ষত্র জাইমা নূর!

ইসলামী সঙ্গীতে দেশ-বিদেশে সুপরিচিত, স্বনামধন্য শিশু শিল্পী জাইমা নূর গতকাল ( ৩০/৬/২০২২) সন্ধ্যার পর লাইভে শেষ গান করে চলে গেলো। বিশেষ করে “বাবা মানে হাজার বিকেল আমার ছেলে বেলা” এই গানটি গেয়ে বেশ সাড়া জাগিয়েছে জাইমা। সে বর্তমানে (সম্ভবতঃ) পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

ইতোমধ্যেই তাঁর মধুর কন্ঠে পরিবেশিত প্রায় ৬০/৭০ টি ইসলামি সঙ্গীত দেশ-বিদেশে সাড়া জাগিয়েছে! সম্ভবতঃ সে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যে সম্পূর্ণ বিনা পারিশ্রমিকে বাজনা ছাড়া শুধু ইসলামি সঙ্গীত করেছিলো। গতকাল সে অনলাইনে লাইভ গান করে নিজের ও পারিবারিক সিদ্ধান্তে পর্দা পালনের জন্যেই আড়ালে চলে গেলো!

আজ থেকে আর কখনো সে অন লাইনে লাইভে এসে কিংবা পর্দার আড়াল থেকেও পর পুরুষদের মধুর কন্ঠে গান শুনাবে না! সে যেনো আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে শিখিয়ে গেলো নির্ধারিত সময় থেকে মেয়েদের গানের কন্ঠস্বরটাও পর্দার অন্তর্ভুক্ত!

ইসলামী সঙ্গীতে দেশ-বিদেশে সুপরিচিত, স্বনামধন্য শিশু শিল্পী জাইমা নূর গতকাল ( ৩০/৬/২০২২) সন্ধ্যার পর লাইভে শেষ গান করে চলে গেলো। বিশেষ করে “বাবা মানে হাজার বিকেল আমার ছেলে বেলা” এই গানটি গেয়ে বেশ সাড়া জাগিয়েছে জাইমা। সে বর্তমানে (সম্ভবতঃ) পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

ইতোমধ্যেই তাঁর মধুর কন্ঠে পরিবেশিত প্রায় ৬০/৭০ টি ইসলামি সঙ্গীত দেশ-বিদেশে সাড়া জাগিয়েছে! সম্ভবতঃ সে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যে সম্পূর্ণ বিনা পারিশ্রমিকে বাজনা ছাড়া শুধু ইসলামি সঙ্গীত করেছিলো। গতকাল সে অনলাইনে লাইভ গান করে নিজের ও পারিবারিক সিদ্ধান্তে পর্দা পালনের জন্যেই আড়ালে চলে গেলো!

আজ থেকে আর কখনো সে অন লাইনে লাইভে এসে কিংবা পর্দার আড়াল থেকেও পর পুরুষদের মধুর কন্ঠে গান শুনাবে না! সে যেনো আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে শিখিয়ে গেলো নির্ধারিত সময় থেকে মেয়েদের গানের কন্ঠস্বরটাও পর্দার অন্তর্ভুক্ত!

ইসলামী সঙ্গীতে দেশ-বিদেশে সুপরিচিত, স্বনামধন্য শিশু শিল্পী জাইমা নূর গতকাল ( ৩০/৬/২০২২) সন্ধ্যার পর লাইভে শেষ গান করে চলে গেলো। বিশেষ করে “বাবা মানে হাজার বিকেল আমার ছেলে বেলা” এই গানটি গেয়ে বেশ সাড়া জাগিয়েছে জাইমা। সে বর্তমানে (সম্ভবতঃ) পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

ইতোমধ্যেই তাঁর মধুর কন্ঠে পরিবেশিত প্রায় ৬০/৭০ টি ইসলামি সঙ্গীত দেশ-বিদেশে সাড়া জাগিয়েছে! সম্ভবতঃ সে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যে সম্পূর্ণ বিনা পারিশ্রমিকে বাজনা ছাড়া শুধু ইসলামি সঙ্গীত করেছিলো। গতকাল সে অনলাইনে লাইভ গান করে নিজের ও পারিবারিক সিদ্ধান্তে পর্দা পালনের জন্যেই আড়ালে চলে গেলো!

আজ থেকে আর কখনো সে অন লাইনে লাইভে এসে কিংবা পর্দার আড়াল থেকেও পর পুরুষদের মধুর কন্ঠে গান শুনাবে না! সে যেনো আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে শিখিয়ে গেলো নির্ধারিত সময় থেকে মেয়েদের গানের কন্ঠস্বরটাও পর্দার অন্তর্ভুক্ত!

About admin

Check Also

ভারতবর্ষের প্রথম মসজিদ যা মহানবী (সা:) জীবিত থাকাকালেই নির্মিত হয়

চিরসবুজের এক রাজ্য ভারতের কেরালা। এই প্রদেশের কোদুঙ্গাল্লুর জেলার চেরামান জুমা মসজিদ ঘুরেফিরে দেখা কোনো …

Leave a Reply

Your email address will not be published.