গোপন ক্যামেরায় তরুণীর অশ্লীল ভিডিও, পাঠানো হলো স্বামীর মোবাইলে

নওগাঁর নিয়ামতপুরে মায়ের সহযোগিতায় গোপন ক্যামেরায় ধারণ এক তরুণীর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে যুবক। সেই ছবি ও ভিডিও ওই তরুণীর স্বামীসহ বিভিন্ন স্থানে ছড়ানোর দায়ে পর্নোগ্রাফি মামলা হয়েছে। এ মামলায় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী তরুণীর দায়ের করা মামলায় বুধবার হাসান মারুফ (২৩) নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করে থানায় আনে পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেফতার যুবক মাহামুদুল হাসান মারুফ উপজেলা সদর ইউনিয়নের বালাহৈর গ্রামের বাসিন্দা মইন উদ্দিন বাবুর ছেলে। এ মামলায় অপর আসামি মারুফের মা আয়েশা বেগম (৪২)। তিনি মইন উদ্দিনের স্ত্রী।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বিগত দুই বছর পূর্বে একই জায়গায় প্রাইভেট পড়ার সুবাদে ভুক্তভোগী ওই তরুণীর সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় মারুফের। বন্ধুত্বের কারণে ওই যুবক ভুক্তভোগী তরুণীকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করত প্রায়। একদিন জন্মদিনের এক পার্টিতে দাওয়াত করে বাড়িতে নিয়ে যায় তাকে।

এরপর মায়ের সহযোগিতায় ওই তরুণীকে নিজ ঘরে আটকিয়ে রেখে মারুফ প্রেমের প্রস্তাবসহ কিছু ছবি তোলার কথা বলে। এমন প্রস্তাবে ওই তরুণী রাজি না হওয়ায় ঘরে থাকা ছুরির ভয় দেখিয়ে অশ্লীল ছবি তুলে ছেড়ে দেয় তাকে। পরবর্তীতে আবার নিজ বাড়িতে ডেকে পাঠায় মারুফ।

কিন্তু তার ডাকে ওই তরুণী আসতে না চাইলে পূর্বে তোলা কিছু ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি প্রদর্শন করলে বাধ্য হয়ে সাড়া দেয় সে। আবারও যায় তার ঘরে। এরপর ভয়ভীতি দেখিয়ে কৌশলে আবারো গোপন ক্যামেরায় অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে তরুণীর।

মারুফের এমন কর্মকাণ্ডে ভুক্তভোগী ওই তরুণী মোবাইল নাম্বার পরিবর্তন করে এবং ২২ জুন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে সুখেই শুরু করে করে তার নব-দাম্পত্য জীবন। কিন্তু বিয়ের সংবাদে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে মারুফ। ২৭ জুন ওই তরুণীর স্বামীর হোয়াটসঅ্যাপ ও ম্যাসেঞ্জারে তার ফোনে ধারণ করা অশ্লীল ভিডিও পাঠায়।

ভুক্তভোগী ওই তরুণী জানান, মারুফ আমার জীবনটাকে তছনছ করে দিয়েছে। শেষমেশ কোনো উপায় না পেয়ে থানায় মামলা করতে বাধ্য হয়েছি। আমার প্রতি যে অন্যায় হয়েছে, আমি তার উপযুক্ত বিচার চাই।

নিয়ামতপুর থানার ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, সকালে পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা হয়েছে। তরুণীর দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত আসামি মারুফকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

নওগাঁর নিয়ামতপুরে মায়ের সহযোগিতায় গোপন ক্যামেরায় ধারণ এক তরুণীর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে যুবক। সেই ছবি ও ভিডিও ওই তরুণীর স্বামীসহ বিভিন্ন স্থানে ছড়ানোর দায়ে পর্নোগ্রাফি মামলা হয়েছে। এ মামলায় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী তরুণীর দায়ের করা মামলায় বুধবার হাসান মারুফ (২৩) নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করে থানায় আনে পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

গ্রেফতার যুবক মাহামুদুল হাসান মারুফ উপজেলা সদর ইউনিয়নের বালাহৈর গ্রামের বাসিন্দা মইন উদ্দিন বাবুর ছেলে। এ মামলায় অপর আসামি মারুফের মা আয়েশা বেগম (৪২)। তিনি মইন উদ্দিনের স্ত্রী।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বিগত দুই বছর পূর্বে একই জায়গায় প্রাইভেট পড়ার সুবাদে ভুক্তভোগী ওই তরুণীর সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় মারুফের। বন্ধুত্বের কারণে ওই যুবক ভুক্তভোগী তরুণীকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করত প্রায়। একদিন জন্মদিনের এক পার্টিতে দাওয়াত করে বাড়িতে নিয়ে যায় তাকে।

এরপর মায়ের সহযোগিতায় ওই তরুণীকে নিজ ঘরে আটকিয়ে রেখে মারুফ প্রেমের প্রস্তাবসহ কিছু ছবি তোলার কথা বলে। এমন প্রস্তাবে ওই তরুণী রাজি না হওয়ায় ঘরে থাকা ছুরির ভয় দেখিয়ে অশ্লীল ছবি তুলে ছেড়ে দেয় তাকে। পরবর্তীতে আবার নিজ বাড়িতে ডেকে পাঠায় মারুফ।

About admin

Check Also

অ’নেক হা’ড্ডাহা’ড্ডি ল’ড়াই করে বি’লের ম’ধ্যে জাল দিয়ে ফা’দ পেতে বি’শাল ব’ড় ব’ড় মা’ছ শি’কার, যা নেট দু’নিয়ায় ব্যা’পক সাড়া জা’গিয়েছে তু’মুল ভা’ইরাল ভিডিও

অনেক হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে বিলের মধ্যে জাল দিয়ে ফাদ পেতে বিশাল বড় বড় মাছ শিকার, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.