পাঁচ বছর আগে এই দিনটায় আমার জীবন ওলট-পালট হয়ে যায়: ফারিয়া

পাঁচ বছর আগে ঠিক এইদিনে নিজের বাবাকে হারিয়েছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। ২০১৭ সালের আজকের এই দিনে (১৬ জুলাই) তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা মীর আবদুল্লাহ মারা যান। বাবার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীতে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছেন এই অভিনেত্রী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাবার সঙ্গে তোলা একটি ছবি শেয়ার করে ফারিয়া লিখেছেন , ‘ঠিক পাঁচ বছর আগের এই দিনটায় আমার পুরো জীবন ওলট-পালট হয়ে যায়। ঐদিন বাবা আমাদের ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে যান!

হঠাৎ সেদিন কীভাবে যেন বাসার ছোট তৃপ্তি থেকে আমি বড় হয়ে গেলাম! যদিও গত পাঁচ বছরেও সেদিন সেসব ওলট-পালট হয়েছে তা সামলাতে পারিনি! তাও বাবা ছাড়া খানিকটা অ্যাডজাস্ট করা সম্ভবত শিখে গেছি!’

ফারিয়া বাবার স্নেহ প্রসঙ্গে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সব বাবার কাছেই কন্যারা রাজকন্যা। আমরা তিন বোনও তা-ই। তবে আশপাশের কেউ কারও প্রসঙ্গে কিছু বললেই তিনি আমাদের দিয়ে সেটা বিচার করতেন।

কাউকে কেউ সুন্দর বললে আমার বাবা কম্পেয়ার করতেন তার মেয়েদের মতো সুন্দর কিনা? যেমন কেউ লম্বা হলে বাবা বলতেন, আমার মেয়েদের মতো উচ্চতা! এগুলো ছিল মূলত আমাদের উৎসাহিত করতেই।’

২০১৭ সালে শবনম ফারিয়ার বাবা অসুস্থ অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুর আগে তিনি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পেশাগত জীবনে তিনি নিজেও ছিলেন চিকিৎসক।

পাঁচ বছর আগে ঠিক এইদিনে নিজের বাবাকে হারিয়েছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। ২০১৭ সালের আজকের এই দিনে (১৬ জুলাই) তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা মীর আবদুল্লাহ মারা যান। বাবার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকীতে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছেন এই অভিনেত্রী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাবার সঙ্গে তোলা একটি ছবি শেয়ার করে ফারিয়া লিখেছেন , ‘ঠিক পাঁচ বছর আগের এই দিনটায় আমার পুরো জীবন ওলট-পালট হয়ে যায়। ঐদিন বাবা আমাদের ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে যান!

হঠাৎ সেদিন কীভাবে যেন বাসার ছোট তৃপ্তি থেকে আমি বড় হয়ে গেলাম! যদিও গত পাঁচ বছরেও সেদিন সেসব ওলট-পালট হয়েছে তা সামলাতে পারিনি! তাও বাবা ছাড়া খানিকটা অ্যাডজাস্ট করা সম্ভবত শিখে গেছি!’

ফারিয়া বাবার স্নেহ প্রসঙ্গে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সব বাবার কাছেই কন্যারা রাজকন্যা। আমরা তিন বোনও তা-ই। তবে আশপাশের কেউ কারও প্রসঙ্গে কিছু বললেই তিনি আমাদের দিয়ে সেটা বিচার করতেন।

কাউকে কেউ সুন্দর বললে আমার বাবা কম্পেয়ার করতেন তার মেয়েদের মতো সুন্দর কিনা? যেমন কেউ লম্বা হলে বাবা বলতেন, আমার মেয়েদের মতো উচ্চতা! এগুলো ছিল মূলত আমাদের উৎসাহিত করতেই।’

২০১৭ সালে শবনম ফারিয়ার বাবা অসুস্থ অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুর আগে তিনি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পেশাগত জীবনে তিনি নিজেও ছিলেন চিকিৎসক।

About admin

Check Also

বা’সর রা’তে সে এ’মন ভাবে ক’রবে আ’মি বি’শ্বাস ক’রতে পা’রছি না, ছিঃ…

বাসর রাত। সবার জীবনে এই রাতটি নাকি অনেক স্বপ্নের, অনেক আশার। ওসব ভাবনার নিকুচি করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.